রান্না খাবার নিয়ে প্রতিদিন ছুঁটে চলা নারী ধুনটের জয়িতা বিথি

বগুরা প্রতিনিধি।।

22

করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষকে সহায়তা করার নেশায় মেতে উছেঠে ধুনটের স্কুল শিক্ষিকা জয়িতা ফৌজিয়া হক বিথী। বেতন বোনাসের টাকায় চলছে মানুষের সেবা করা। সরকার যেখানে হিমশিম খাচ্ছে পরিস্থিতি সামাল দিতে তখন অনেক নারীই করোনাকালে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেই চলেছেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় যেমন করে মেয়েরা লুকিয়ে রান্না করে মুক্তিযোদ্ধাদের খাওয়াতেন ।

ঠিক একইভাবে আজ এক ভিন্নরকম যুদ্ধে-মহামারীর সময়ে তারা ভয় কে জয় করে না পিছিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। নিজের রান্ন করা খাবার ও ইফতার অসহায় রোজাদার মানুষের মাঝে বিলিয়ে দিচ্ছেন। করোনা শুরু থেকে নিজ হাতে তৈরি ১০ হাজার মাস্ক বিতরন করেছেন, গরীব অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী, অসহায় বিধবা নারীদের হাতে তুলে দিয়েছেন শাড়ী লুঙ্গি ধুতি, শিশুদের খাতা কলম ও ঈদের নতুন পোশাক। শুধু তাই নয় বিশেষ করে নির্যাতিত নারীদের বিচার পেতে সবার আগে এগিয়েছেন এই নারী।

নির্যাতিত নারীরা তাদের পারিবারিক বন্ধন ফিরে পেতে আইন সহায়তার জন্য প্রশাসনের দ্বারে নিয়ে যান। এ জন্য অনেক নারীই ফিরে পেয়েছে স্বপ্নের সুখের নীড়। সমাজসেবা ও মানবিক কাজের কল্যাণে অবদান রাখায় অনেক বার পুরষ্কারও পেয়েছেন তিনি। বগুড়া জেলার শ্রেষ্ঠ জয়িতার পুরষ্কার অর্জন করেছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ফৌজিয়া হক বিথি জানান আমার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা। দীর্ঘ ৯ মাস যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছে। আর আমরা তার সন্তান হয়ে দেশের ক্রান্তিলগ্নে দেশকে এগিয়ে নিতে কাজ করছি। দেশ এগিয়ে গেলে আমরা এগিয়ে যাবো। সমাজের বৃত্তবানরা এগিয়ে আসলে অসহায় মানুষেরা বেশী উপকৃত হবে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!