রোনালদোর জুভেন্টাস ফিওরেন্টিনার কাছে হেরে গেল

অনলাইন ডেস্ক।।

85

আসরের শুরু থেকেই নিজেদের স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারেনি ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস। এক ম্যাচে জয় তো পরের ম্যাচে ড্র করে দুই পয়েন্ট খোয়ানো- এভাবেই চলছিল তাদের এবারের মৌসুমের যাত্রা। কিন্তু ১৩তম ম্যাচে এসে আর পারল না তুরিনোর ক্লাবটি, হেরেই গেলো ফিওরেন্টিনার কাছে।

নিজেদের ঘরের মাঠে মঙ্গলবার রাতে ফিওরেন্টিনার কাছে ০-৩ গোলে হেরেছেন রোনালদোরা। ইতালিয়ান সিরি ‘আ’র চলতি মৌসুমে এটি তাদের প্রথম পরাজয়। এছাড়া ২০০৮ সালের পর প্রথমবার জুভেন্টাসকে তাদের মাটিতে হারাল ফিওরেন্টিনা। এই পরাজয়ে শিরোপা ধরে রাখার মিশনে বড় ধাক্কাই লাগল জুভেন্টাসের।

অথচ পুরো ম্যাচে যে খুব একটা খারাপ খেলেছে জুভেন্টাস, এমনটা নয়। পুরো ম্যাচে ৫৪ শতাংশ সময় বলের দখল নিজেদের কাছেই রেখেছিল আন্দ্রে পিরলোর শিষ্যরা। আক্রমণও করেছে ফিওরেন্টিনার চেয়ে বেশি, অন্তত ১৩ বার তারা হানা দিয়েছিল প্রতিপক্ষের রক্ষণে। কিন্তু কাজের কাজ গোলটি করতে পারেনি।

উল্টো ম্যাচের মাত্র তৃতীয় মিনিটেই গোল হজম করে বসে জুভেন্টাস। ফ্রাংক রিবেরির এগিয়ে দেয়া বলটি অসাধারণ দক্ষতায় নিজের দখলে নেন সার্বিয়ান দুসান ভ্লাহোভিচ, ছিটকে দেন দুই ডিফেন্ডার ম্যাথিয়াস ডি লিট ও লেওনার্দো বনুচ্চিকে। পরে নিখুঁত ফিনিশিংয়ে পরাস্ত করেন গোলরক্ষককে।

শুরুতেই গোল হজম করে পিছিয়ে যাওয়ার পর ১৮তম মিনিটে দশজনের দলে পরিণত হন রোনালদোরা। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে গিয়ে মিডফিল্ডার গায়তানো কাস্ত্রোভিলোকে অহেতুক কড়া ট্যাকল করেন জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড হুয়ান কুয়াদ্রারো। প্রথমে হলুদ কার্ড দেখালেও, পরে ভিএআর দেখে তাকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি।

দশজনের দল নিয়ে প্রথমার্ধের পুরোটা সময়ের পর দ্বিতীয়ার্ধেও ৩০ মিনিট পর্যন্ত লড়ে গেছে জুভরা। কিন্তু ম্যাচের ৭৬ মিনিটের সময় অ্যালেক্স সান্দ্রোর আত্মঘাতী গোলে লিড বাড়ে ফিওরেন্টিনার। আর সবশেষ ৮১ মিনিটের সময় জুভেন্টাসের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন মার্টিন সেসেরাস।

এ পরাজয়ের ফলে এখন পয়েন্ট টেবিলের ৪ নম্বরে অবস্থান করছে তারা। ১৩ ম্যাচে ৬ জয় ও ৬ ড্রয়ে তাদের সংগ্রহ ২৪ পয়েন্ট। সমান ম্যাচ খেলে ৯ জয় ও ৪ ড্রয়ে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে এসি মিলান।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!