র‍্যাবের বিরুদ্ধে আ. লীগ নেতার পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

জাবেদ হোসাইন মামুন, ২৮ডিসেম্বর, ২০১৯খ্রি. শনিবারঃ

234
আ.লীগ নেতা নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীরের বাড়ি থেকে শুক্রবার অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় র‍্যাবের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে তার পরিবারের সদস্যরা।
শনিবার বেলা ১১টায় শহরের অতিথি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে তার পরিবারের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন তার চাচাতো ভাই আমজাদ হোসেন। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন গ্রেফতারকৃত নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীরের পিতা মো. সাদেক হোসেন, বোন কহিনুর হক, ভাই জসিম উদ্দিন, আবু বক্কর ছিদ্দিক, চাচা শামছুল হুদা, স্ত্রী তাসলিমা আক্তার, শিশুকন্যা আফ্রিদা নূ্র ও পুত্র নূর অহনা।
তারা অভিযোগ করেন শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ধর্মপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে মুশফিকুর সালেহীনের বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে সাদা পোশাকধারী আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীরকে আটক করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে র‍্যাবের সদস্যরা তাদের গাড়িতে করে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসে। তার বসত ঘরে তল্লাশি চালিয়ে কিছু না পেয়ে ব্যাডমিন্টন র‍্যাকেটের দুইটি ব্যাগভর্তি অস্ত্র রেখে কাছারি ঘরের সামনে জাহাঙ্গীরকে রেখে ছবি তুলে। এসময় তার পরিবারের সদস্যরা প্রতিবাদ করলে র‍্যাব সদস্যরা তাদেরকে মারধর করে।
অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীরকে আসামি করে র‍্যাব মামলা দায়ের করে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ করে। তারা আরো দাবি করেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ গ্রুপের প্রতিহংসা ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে র‍্যাব সদস্যরা জাহাঙ্গীরকে ভুয়া অস্ত্র দিয়ে মামলায় জড়িয়েছে। মিথ্যা অস্ত্র মামলা থেকে নিস্তার পেতে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
নূর উদ্দিন জাহাঙ্গীর ধর্মপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক, ইউনিয়ন আ.লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমানে একই ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে দায়ীত্ব পালন করছেন। তিনি চট্রগ্রাম আগ্রাবাদ এলাকার গুডলাক দোকানের ব্যবসায়ীও বলে তারা দাবি করেন।
আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!