লালমাইয়ে রমরমা জুয়ার আসর

59

মোঃনাছির আহাম্মেদ (লালমাই প্রতিনিধি)।।

লালমাই উপজেলার পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের হদকরা (ফাজিলপুর) গ্রামে দীর্ঘ দিন ধরে চলছে রমরমা জুয়ার আসর ও মিনি কেচিনো। পাশাপাশি চলছে মাদক বিক্রি ও পতিতাবৃত্তি। হদকরা গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে মিজান, মালেক মিয়ার মেয়ে পারুল বেগম ও গজারিয়া গ্রামের মৃত আফতাব মিয়ার ছেলে জাকিরের নেতৃত্বে দীর্ঘ দিন ধরে চলছে এই অপকর্ম গুলো।

জুয়ার আসর, পতিতাবৃত্তি কখনও ওই গ্রামের নুরুল ইসলাম, সুন্দর আলী, পারুল বেগমের ঘরে পরিচালিত হয়। শুষ্ক মৌসুমে ওই গ্রামের ইসহাক মিয়ার চায়ের দোকানের উত্তর পাশে বাগানে চলে খেলা। প্রতিদিন বিকাল ৩টা হতে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে এই খেলা মাঝে মাঝে সারাদিন ব্যাপী ও চলে। মাদক বিক্রি করে গজারিয়া রাস্তার মাথায় দুলাল। উপজেলার বিভিন্ন স্হান থেকে প্রখ্যাত জুয়াড়িরা এসে খেলে এই আসরে। এ যেন জুয়া খেলার স্বর্গরাজ্য। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার বেশ ক,জন জানান পুলিশ, স্হানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বার সকলেই এখান থেকে ভাগ পান। প্রতিদিন এই আসর থেকে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা বিভিন্ন মহল ম্যানেজ বাবদ খরচ হয় বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়। ওই এলাকার মেম্বার কাজিম উদ্দীন বলেন বহু চেষ্টা করে এই আসর বন্ধ করলেও ক,দিন পর কোন অদৃশ্য শক্তির জোরে পুনরায় আবার চালু হয়।

স্হানীয় চেয়ারম্যান এ জি এম সফিকুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন জুয়া খেলার সংবাদ আমি শুনেছি বন্ধ করার জন্য প্রশাসনের সাথে কথা বলেছি। ভূশ্চি পুলিশ ফাঁড়ি থানার ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেনের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন জুয়া খেলার খবর আমি শুনেছি ইতিমধ্যে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়েছি বলে তিনি জানান।

আরো পড়ুনঃ