সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় সৈকত

60

মোঃ হুমায়ুন কবির মানিক।। সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে চায় ইমতিয়াজ উদ্দিন সৈকত। সে এবার কুমিল্লার লাকসাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে জিপিএ-৫ পেয়েছে। সৈকত মনোহরগঞ্জ উপজেলার উত্তর হাওলা ইউনিয়নের ফেনুয়া গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী ও লাকসাম দৌলতগঞ্জ বাজারের পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন ‘সোহাগ সাপ্লাইয়ার্স’ এর সত্ত¡াধিকারী মোঃ মোস্তফা কামাল সোহাগের ছোট ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সৈকত শৈশব থেকেই শান্ত-শিষ্ট প্রকৃতির। পড়াশুনার প্রতি তার অগাধ আসক্তি। খেলাধুলায়ও রয়েছে তার সম্যক পারদর্শিতা। সে ২০১৪ সালে ফেনুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে গোল্ডেন এ প্লাস অর্জন করে। পরবর্তীতে সে লাকসাম সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়। সৈকত নিয়মিত ক্লাস করতো। বাসায় এসেও রুটিন অনুসারে পড়াশুনা করতো। চলতি বছর বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে সে জিপিএ-৫ পেয়েছে। ভবিষ্যতে সে পড়াশুনা শেষ করে জনকল্যাণে নিবেদিত হতে চায়।

সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ইমতিয়াজ উদ্দিন সৈকত বলেন, ‘আব্বু-আম্মু এবং ভাইয়াদের অনুপ্রেরণাতেই আমি এতদূর আসতে সক্ষম হয়েছি। এক্ষেত্রে আমার সম্মানিত শিক্ষক মহোদয়গণ এবং প্রিয় সহপাঠীদের সহযোগিতাও অনস্বীকার্য। আগামী দিনেও সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং পড়াশুনা শেষ করে জনকল্যাণে নিবেদিত হতে আমি সকলের দোয়া প্রত্যাশী।’

সৈকতের বড় ভাই সাহাব উদ্দিন সুমন বলেন, ‘পরিবারের প্রত্যাশা পূরণে সৈকতের প্রচেষ্টায় কমতি ছিলো না। সে পড়াশুনার প্রতি যথেষ্ট মনযোগী। আমরা আশাবাদী, আগামী দিনেও সে সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখবে এবং সমাজে একজন প্রতিষ্ঠিত মানুষ হয়ে আমাদের মুখ উজ্জ্বল করবে।’

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!