সামাজিক দূরত্বের বালাই নেই রংপুরের আমের বাজারে

78

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, মমিনুল ইসলাম রিপন (রংপুর)।। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জেলা প্রশাসনের ঘোষণা অনুযায়ী রংপুর নগরীতে বিকাল ৪টার পর থেকে সকল প্রকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ দোকানপাট বন্ধ রাখা হলেও থেমে নেই থেমে নেই রংপুর কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনালের আম বাজারে বেচা কেনা । এই বেচা বিক্রি সকাল থেকে শুরু করে চলে রাত ৯টা পর্যন্ত। করোনার এই প্রাদুর্ভাবে আম বাজারে উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।

আম বাজারে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না ক্রেতা ও বিক্রেতারা। এতে করে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা সচেতন মহল। এ বিষয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের আম বাজারে রংপুরের পদাগঞ্জের বিখ্যাত হাড়িভাঙ্গা আম বেশী বিক্রি হচ্ছে। সেই সাথে ফজলি, হিমসাগর (খিরসাপাত), গোপালভোগ, মহনভোগ, ল্যাংড়াসহ শতাধিক জাতের আম রয়েছে। তবে এবার দাম একটু চড়া।

ব্যবসায়ীরা জানান, রংপুরের বিখ্যাত হাড়িভাঙ্গা আমের মণপ্রতি বিক্রি হচ্ছিল ১৯০০ থেকে ২২০০ পর্যন্ত। সেই হাড়িভাঙ্গা আম এক সপ্তাহের ব্যবধানে মণপ্রতি ২৬০০ থেকে ২৮০০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। এছাড়াও প্রতিমণ হিমসাগর ২৫০০ থেকে ৩২০০ টাকা, ল্যাংড়া ১৮০০ থেকে ২২০০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।

খোড়াগাছ পদাগঞ্জের আমচাষি জামিল উদ্দিন বলেন, করোনার কারণে সরাসরি আম কিনছেন এমন ক্রেতার সংখ্যা খুব কম। অনলাইনসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা ক্রেতাদের হাতে আম তুলে দিচ্ছি। এভাবে আমরা আমের অনেক অর্ডার পাচ্ছি। নিজস্ব কুরিয়ারের মাধ্যমে ফরমালিনমুক্ত আম পাঠাচ্ছি। এছাড়াও হোম ডেলিভারিও দিচ্ছি।

নগরীর চেকপোষ্ট এলাকার শহিদুল নামের এক ক্রেতা জানান, করোনাকালে আম বাজারে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের ভিড় দেখে অবাক হয়েছি। এখানে সামাজিক দুরত্বের বালাই নেই। এই পরিস্থিতি দেখে আম কেনা হয়নি।

এ বিষয়ে রংপুর কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনাল আম বাজারের ইজারাদারু জানান, মুখে মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ব্যবসায়ীদের আম বিক্রির কথা বলা হচ্ছে।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের বাজার শাখার সহকারী আনারুল হক জানান, করোনার এই পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব রেখে আম ক্রয় ও বিক্রয় করা জন্য সিটি কর্পোরেশন থেকে ব্যবসায়ীদের চিঠি দেয়া হয়েছে। তবে যদি কেউ না মানে তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান জানান, আম বাজারের বিষয়টি নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!