সিদ্ধার্থ শুক্লা ও সাইবার বুলিং নিয়ে আবেগঘন শবনম ফারিয়া

১৩৩

‘বিগ বস’ সিজন ১৩-এর বিজয়ী ভারতীয় অভিনেতা ও মডেল সিদ্ধার্থ শুক্লা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঘুমের মধ্যেই পরপারে পাড়ি জমান।

মাত্র ৪০ বছর বয়সে সিদ্ধার্থর এই প্রস্থানে চরম হতাশা প্রকাশ করেছেন। জানিয়েছেন, তিনি তার ব্যক্তিত্বের ভক্ত ছিলেন। সিদ্ধার্থর এই হঠাৎ চলে যাওয়াকে উদাহরণ হিসেবে ফারিয়া টেনেছেন মানুষের ঠুনকো জীবনের বিষয়টি। বললেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে আমাদের সবার জীবন অনেক খোলা, সবাই জানি কোন তারকা কি করছে, কোথায় যাচ্ছে! মাঝে মাঝে মনে হয় ওরা আমাদের কাছের কেউ, অনেক চেনা! তেমনই একজন তারকা সিদ্ধার্থ। আমি তাকে কোনও সিরিয়ালে দেখিনি, কিন্তু বিগ বস দেখে তার ব্যক্তিত্বের ফ্যান হয়ে গিয়েছিলাম। অথচ ঘুম থেকে উঠে জানলাম, সে আর নেই!’

সিদ্ধার্থর মৃত্যুর খবরে অনেকটাই থমকে গেছেন শবনম ফারিয়া। বললেন, ‘খুবই অদ্ভুত অনুভূতি হয়েছে! মনে হয়েছে খুব কাছের, প্রিয় কেউ চলে গেছে।’জীবনটা বড় ঠুনকো, তাই অন্যের জীবন নিয়ে না ভেবে নিজ নিজ জীবন নিয়ে প্রত্যেকের আরও যত্নশীল হওয়ার তাগিদ দেন এই অভিনেত্রী।বলেন, ‘জীবন অনেক ছোট। আমরা শুধু শুধুই অন্যের জীবন নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা করে নিজেদের সময়টা নষ্ট করি। যাকে ছোট করছি, আসলে সে ছোট হচ্ছে না। আপনার জীবন থেকেই কিছু সময় ছোট হচ্ছে। অন্যের জীবনে কী হচ্ছে, কেন হচ্ছে- এসব না ভেবে নিজেকে ডেভেলপ করার চেষ্টা করুন।’টানলেন পরকালের হিসাবও!

অন্তর্জালে সারাক্ষণ যারা অন্যের সমালোচনায় মুখর থাকেন তাদের দৃষ্টি টেনে ফারিয়া বললেন, ‘পরকালে যার যার হিসাব সে সেই দেবে। কেউকারও দায়িত্ব নেবে না। আপনার কি মনে হয়, আপনার একটা বাজে কমেন্ট কারও কিছু বদলে দিতে পারে? কিন্তু বিশ্বাস করুন, একদিন আপনার এই বাজে কমেন্টের বা বুলিংয়ের হিসাব আপনাকেই দিতে হবে। সবাইকে সব কিছুর হিসাব দিতে হয়।’

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে লেখা এই পোস্টের শেষে শবনম ফারিয়া বলেন, ‘জীবন একটাই, সোশ্যাল মিডিয়াতে অন্যকে বুলিং করে নষ্ট করার মতো বোকামি আর কিছুতে নেই।’

‘দেবী’-খ্যাত অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া চলমান করোনাকালে অভিনয় থেকে নিজেকে অনেকটাই গুটিয়ে রেখেছেন। বিপরীতে ব্যস্ত আছেন চাকরিজীবন নিয়ে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!