সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জনকে জড়িয়ে দায়েরকৃত অভিযোগ মিথ্যা প্রমানিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

60

সুনামগঞ্জ জেলা ২৫০শয্যা সদর হাসপাতালের সিভিল সার্জন ও আউট সোর্সিং জনবল ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস কোং প্রাঃ লিঃ এর উপড় বাতিল পড়া ঠিকাদরী প্রতিষ্ঠানের দায়েরকৃত অভিযোগ মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে।

জনাযায় গত ২৭আগষ্ট জনবল সরবরাহকারী ৪টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয়ে টেন্ডার ড্রপিংএ অংশ গ্রহন করেন। এর মধ্যে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে সঠিক কাগজপত্র না থাকার কারনে ৭ সদস্য মুল্যায়ণ কমিটির সদস্যদের স্বাক্ষরকৃত গত ২সেপ্টম্বর একটি সারসংক্ষেপ প্রকাশের মাধ্যমে যমুনা ,সরকার, ও ধলেশ্বরী নামক তিনটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে বাতিল করা হয় এবং অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস প্রতিষ্ঠানকে সঠিক কাগজ পত্র দাখিল করার কারনে বহাল রাখা হয়। এতে বাতিল পরা প্রতিষ্ঠানের মনোনীত সদস্যরা সিভিল সার্জন ও সঠিক কাগজপত্র দাখিলকৃত অনেষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের উপড় হিংসান্নিত হয়ে মিথ্যা অভিযোগ দায়েরসহ কাল্পনিক অপপ্রচার চালাচ্ছেন। যা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান অনেষ্ট কোম্পানী ও হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের মানহানিকর পরিবেশের সামিল মধ্যে পড়ে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এছাড়াও জানা যায় বাতিল পরা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানদের মনোনীত সদস্যরা দাবী করেন অনেষ্ট সিকিউরিটি সর্ভিস প্রতিষ্ঠানের কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শক অধিদপ্তর কর্তৃক ২০২১সনের ইস্যুকৃত কোন কাগজ নেই এবং সিভিল সার্জনকে ম্যানেজ করে কাজ হাতিয়ে নিচ্ছেন অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস মর্মে একটি মিথ্যা অভিযোগ এবং একটি অনলাইন পোর্টলে কাল্পনিক মিথ্যা খবর প্রকাশ করা হয়। যা মিথ্যা ও বানোয়াট এমনটির প্রমাণ পাওয়া যায় অবশেষে।
জানা যায় গত ১ সেপ্টেম্বর ২০২০ইং তারিখে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর শ্রম ভবন থেকে যার নং:৪০.০১.০০০০.১০২.৯৯.০৪১.১৮.১১৩৪ নং একটি স্বারক মুলে ঠিকাদার সংস্থার লাইসেন্স এর যথার্থতা ও সত্যতা প্রসঙ্গে সুত্র স্বারকনং সিএসএসজে/২০২০/১১৭৫এর সেপ্টেম্বর২০২০ইং এর অভিযোগের বিষয় ও সুত্রের প্রেক্ষিতে অনেষ্ট ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সংস্থার লাইসেন্স যাচাই পূর্বকতথ্য সমুহ ছক আকারে প্রকাশ পাওয়া যায়।সেখানে কলকারখানা অধিদপ্তর উল্লেখ করেন অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস,১/জি,উত্তরআদাবর,রিংরোড,শ্যামলী,আদাবর,ঢাকা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানটির নামে ২০১৭-২০১৮অর্থবছরেরজন্য”ডি”ক্যাটাগরির২৯২/২০১৭-২০১৮নম্বর লাইসেন্স ইস্যু করা হয়েছে।এবং ইস্যুকৃত লাইসেন্স নং ২৯২/২০১৭-১৮তারিখ ১১ইমার্চ ২০১৮ইং যাহা ৩০জুন ২০২১পর্যন্ত বলবৎ রয়েছে বলে জানা যায়। এমনটির লিখিত মতামত প্রেরণ করেছেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর শ্রম ভবন এর মহাপরিদর্শক ( অতিরিক্ত সচিব) শিবনাথ রায়। যার ফলে বাদপরা ঠিকাদরী প্রতিষ্ঠানের দাখিলকৃত অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট বলে প্রমাণিত হয়।

এব্যাপারে অনেষ্ট সিকিউরিটি সার্ভিস প্রতিষ্ঠানের পরিচালক মো:নাসির উদ্দিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান আমার প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্য সেবায় মানুষের সেবাদান করার জন্য সঠিক লাইসেন্স ও অভিজ্ঞতা সম্পন্ন কাগজপত্র নিয়েই টেন্ডারে অংশ গ্রহন করা হয়েছে। নীতিমালা অনুযায়ী সঠিক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ পাবে সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমার প্রতিপক্ষ প্রতিষ্ঠানের মনোনীত সদস্যরা তাদের সঠিক কাগজপত্র না থাকায় মুল্যায়ণ কমিটি থেকে বাদ পরায় হিংসান্নিত হয়ে আমার প্রতিষ্ঠানের মান সম্মান ক্ষুন্ন করার জন্য একের পর এক মিথ্যা ও কাল্পনিক অভিযোগ দায়ের করে মানুষের মধ্যে একটি বৃভ্রান্তিকর পরিবেশ তৈরি করে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার পায়তারা লিপ্ত রয়েছেন। আমি ঐ সমস্ত প্রতিষ্ঠানের সদস্যদের প্রতি মিথ্যা অপপ্রচার ও কাল্পনিক মানহানিকর কার্যকলাপ থেকে বিরত থাকার জন্য আহŸান জানাই। এবং সাংবাদিক ভাইদের প্রতি সঠিক তথ্য জেনে সংবাদ প্রচার করার প্রত্যাশা করি।

এব্যাপারে সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা: মো: শামস উদ্দিনের কাছে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে ফোন রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!