সোনাগাজীতে যুবলীগ নেতা সহ দুইজনকে হত্যার চেষ্টা

সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি।।

৪৪০

ফেনীর সোনাগাজীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে যুবলীগ নেতা নাজমুল হক মাসুদ ও তার খামার কর্মচারীকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ১৬ জানাুয়ারি রোববার সকাল ১০টার দিকে সোনাগাজী সদর ইউনিয়নের পূর্ব সুজাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ, এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার জানায়, পূর্ব সুজাপুর গ্রামের বেলায়েত হোসেন বেলুর সাথে একই গ্রামের ইউপি সদস্য, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি নুরুল আলমের সাথে দীর্ঘ দিন যাবৎ জমি নিয়ে বিরোধ চলছে।

রোববার সকালে কৃষকলীগ সভাপতির ছেলে, ইউনিয়ন যুবলীগের ক্রিড়া সম্পাদক নাজমুল হক মাসুদ তার মালিকীয় মৎস্য খামারে মাছ ধরতে যান। এসময় পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা প্রতিপক্ষ বেলায়েত হোসেন জ্বিন বেলু, তার ছেলে পিন্টু, লিটন, ভাতিজা নুরনবী, ভাড়াটে সন্ত্রাসী মেজবাহ উদ্দিন, জিহাদ হোসেন এবং শিবলু সহ ১৫-২০জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী মাসুদকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

এসময় তার আত্মচিৎকারে খামার কর্মচারী ইসমাইল হোসেন এগিয়ে এলে তাকেও কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করা হয়। এক পর্যায়ে মাসুদকে পূর্ব সুজাপুর গ্রামের জনৈক মিলনের মুদি দোকানে ঢুকিয়ে শাটার বন্ধ করে শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে তাকে মৃত ভেবে ফেলে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে ইউপি সদস্য আবদুস সালাম ও ইমাম হোসেন গঠন স্থানীয়দের সহায়তায় মাসুদ ও ইসমাইলকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় ইউপি সদস্য নুরুল আলম বাদী হয়ে সাত জনের নাম উল্লেখ করে ও ১০-১২জনকে অজ্ঞাত আসামী করে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন আসামীদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!