সোনাগাজী আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণায় নেতাকর্মীদের উচ্ছ্বাস

জাবেদ হোসাইন মামুন, সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি।।

7

নবীন প্রবীণের সমন্বয়ে ৭১সদস্য বিশিষ্ট ফেনী জেলার সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। গত ২০জুন রাতে জেলা আ.লীগের সভাপতি এডভোকেট হাফেজ আহম্মদ ও সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি স্বাক্ষরিত এই পূর্নাঙ্গ কমিটি উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক, পৌর মেয়র এডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকনের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সাথে সাথেই এটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশ পায়।

এর আগে বর্নাঢ্য আয়োজনে সম্মেলনের মাধ্যমে ২০২০ সালের ১২ডিসেম্বর সভাপতি পদে অধ্যাপক মফিজুল হক ও সাধারণ সম্পাদক পদে, পৌর মেয়র এডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন নির্বাচিত হন। একই তারিখ উল্লেখ করে জেলা আ.লীগের সভাপতি এডভোকেট হাফেজ আহম্মদ ও সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি স্বাক্ষরিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হওয়ায় নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উচ্ছ্বাস দেখা দেয়।

পূর্নাঙ্গ কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে ২০জুন রাতেই একটি আনন্দ মিছিল করা হয়। মিছিলটি সোনাগাজী পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের পাতায় পাতায় ভাসছে নেতাকর্মীদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানানোর ছবি। ২১জুন বিকালে নব ঘোষিত পূর্নাঙ্গ কমিটির সদস্যরা দল বেধে জেলা আ.লীগের সভাপতি এডভোকেট হাফেজ আহম্মদ ও সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপিসহ জেলা নেতৃবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এসময় নিজাম উদ্দিন হাজারী নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, অনেক যাচাইবাছাই করে সোনাগাজীর হাজার হাজার আ.লীগের নেতাকর্মীর মধ্যে ৭১সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। কারো কোন অপকর্ম বা ভুলের দ্বারা যেন দলের বদনাম না হয়, সবাই সেই দিকে খেয়াল রাখবেন। ঘোষিত কমিটির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, পৌর আ.লীগের সাবেক সভাপতি প্রবীণ আ.লীগ নেতা শেখ নূরুল হুদা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন, নবীণ প্রবীণের সমন্বয়ে ঘোষিত সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি একটি চমৎকার কমিটি হয়েছে।

দীর্ঘ সময় যাচাইবাছাই করে পরীক্ষিত নেতাদের দিয়ে কমিটি গঠন করায় জেলা কমিটিকে ধন্যবাদ জানান। নতুন কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, চরচান্দিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন মিলন নতুন কমিটির সকল সদস্যকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধুর পরীক্ষিত সৈনিক আখ্যা দিয়ে বলেন, অতীতের সকল সময়ের মধ্যে একটি ব্যতিক্রমী কমিটি ঘোষিত হয়েছে।

পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণার পর থেকে সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। উজ্জীবিত হয়ে নেতাকর্মীরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে। নতুন দায়ীত্ব প্রাপ্তরা ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হচ্ছে। নব উদ্যোমে কাজ করতে এবং সংগঠনকে শক্তিশালী করতে একে অপরের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু করেছে। ওয়ার্ড থেকে শুরু করে উপজেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নতুন কমিটি ঘোষণার পর থেকে উজ্জীবিত হয়ে উঠেছে। উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, পৌর কাউন্সিলর শেখ আবদুল হালিম মামুন বলেন, সোনাগাজী উপজেলার সর্বত্রই উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে।

ওয়ার্ড থেকে শুরু করে উপজেলা পর্যায়ে নতুন কমিটি ঘোষণার পর থেকে একটি নব জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে । উচ্ছ্বাসিত নেতাকর্মীরা মিষ্টি বিতরণ আর ফুলেল শুভেচ্ছা নিয়ে সাংগঠনিক কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে গণজাগরণ সৃষ্টির শপথ নিয়েছে। সকল ভেদাভেদ ভুলে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে মাঠে নেমে পড়েছে। উপজেলা আ.লীগের দফতর সম্পাদক সুলতান আহমদ বলেন, সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগ এখন সুসংগঠিত এবং শক্তিশালী একটি সংগঠন।

পূর্নাঙ্গ নতুন কমিটি ঘোষণার পর থেকে সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে সর্বত্রই উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। দলীয় কার্যালয় নেতাকর্মীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে। সংগঠনটি নতুন রূপে জেগে উঠেছে। চাঙ্গা হয়ে উঠেছে নেতাকর্মীদের মনোবল। উপজেলা আ.লীগের সভাপতি অধ্যাপক মফিজুল হক বলেন, সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটি একটি নতুন চমক। আমরা চেষ্টা করেছি ত্যাগীদের মূল্যায়ণ করতে।

জেলা কমিটির নেতাদের সাথে আলোচনা করে নবীণ প্রবীণের সমন্বয়ে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এই কমিটি একটি মাইলফলক দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক, পৌর মেয়র এডভোকেট রফিকুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরীক্ষীত সৈনিক ও ত্যাগীদের দিয়ে পূর্নাঙ্গ নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। ক্লিনইমেজের নবীণ প্রবীণের সমন্বয়ে গঠিত এই কমিটি ফেনী জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারীর নেতৃত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে বদ্ধপরিকর। নতুন কমিটি ঘোষণার পর থেকে সোনাগাজীর আওয়ামী পরিবারের সদস্যদের মাঝে উৎসবের আমেজ বয়ে চলেছে।

সব মতভেদ ভুলে সবাই এক ছাতার নীচে এসে সংগঠন মজবুত করতে যোগাযোগ শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশের ব্যাপক উন্নয়নের অংশিদার সোনাগাজী উপজেলায় গণজাগরণ সৃষ্টি হয়েছে। নতুন কমিটির সদস্যরা সরকারের উন্নয়ন আর সফলতা নিয়ে নতুন প্রজন্মকে আ.লীগের পতাকাতলে ভিড়াতে কাজ শুরু করেছেন। বাংলাদেশ আ.লীগ স্বাধীনতার নেতৃত্বদানকারী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠার ৭২বছর অতিক্রম করতে চলেছে।

সংগ্রাম ও অর্জনের দল হিসেবে সোনাগাজী থেকে উঠে গিয়ে জাতীয়ভাবেও অনেকেই নেতৃত্ব দিয়েছে। বর্তমান ঘোষিত কমিটির বহু নেতা রয়েছে জেলা, বিভাগ ও জাতীয়ভাবে নেতৃত্ব দিতে পারে। এই কমিটি একটি ঐতিহাসিক কমিটি হয়ে থাকবে। জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারীর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ফসল আজকের এই কমিটি সুসংগঠিত ও শক্তিশালী। যে কোন আন্দোলন সংগ্রাম ও সংকটে সোনাগাজী উপজেলা আ.লীগের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হিরন্ময় হাতিয়ার হিসেবে প্রস্তুত রয়েছে।

প্রতিটি নেতাকর্মীই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড হয়ে কাজ শুরু করেছে। নেতাকর্মীদের ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় সংগঠনটি প্রাণ ফিরে পেয়েছে। চাঙ্গা হয়ে উঠেছে নেতাকর্মীদের মনোবল। অতীতের সকল জঞ্জাল ও দূর্নাম কাটিয়ে বর্তমান কমিটি একটি ঐতিহাসিক কমিটি হয়ে থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এভাবে আ.লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নতুন কমিটি নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।

নতুন ঘোষিত উপজেলা আ.লীগের ৭১সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির সদস্যরা হলেন-সভাপতি অধ্যাপক মফিজুল হক, সাধারণ সম্পাদক, পৌর মেয়র এডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন। ঘোষিত কমিটিতে নয় জনকে সহ-সভাপতি করা হয়েছে। তারা হলেন- এডভোকেট নাছির উদ্দিন বাহার, এম.এ মজিদ ভুলু মিয়া, শেখ মো. ইসমাইল, আবুল কালাম মিয়া, শাখাওয়াতুল হক বিটু, আবু সুফিয়ান মাস্টার, রবিউজ্জমান বাবু, অধ্যাপক নাফিজ উদ্দিন ও শাখাওয়াত হোসেন আলাউল। যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তিন জন হলেন-মোশারফ হোসেন মিলন, নুর নবী লিটন ও নুরুল আফসার। এছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদক তিন জন হলেন-শেখ আবদুল হালিম মামুন, রুপম শর্মা ও জাহিদ হোসেন।

দপ্তর সম্পাদক সুলতান আহমদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ মো. নুরুল হুদা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহাদাত হোসাইন জুয়েল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল হক চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যান মো.বেলাল হোসেন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক নজরুল ইসলাম মিজান, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক আকবর হোসেন, আইন বিষয়ক সম্পাদক মো. তাজুল ইসলাম ভূঞা।

মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক লিয়াকত আলী খান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা উম্মে রুমা, যুব ও ক্রিড়া সম্পাদক মোশারফ হোসেন, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক মাস্টার সাহাব উদ্দিন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সুমন, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. সারোয়ার হোসেন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নূরনবী তোতা মেম্বার, কোষাধ্যক্ষ কামরুল হাসান, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. ইউছুফ এবং উপ-দফতর সম্পাদক আশীষ লোদ। এছাড়াও কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে ৩৫জন কে।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!