সোনারগাঁয়ে অপরহন করে ধর্ষনের পর হত্যার অভিযোগ গ্রেপ্তার-৩

শুভ, সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ,প্রতিনিধি।।

১৭৭

চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামী থেকে লিমা আক্তার (১৭) নামে এক পোশাককর্মীকে অপহরনের পর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার ঝাউচর গ্রামে নিয়ে এসে ধর্ষন করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ওই তরুনীর পিতা বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার বিবরনীতে উল্লেখ ও তরুনীর বাবা টিটন মিয়া উল্লেখ করেন, তিনি চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামী থানার আমিন কলনী এলাকার বাসিন্দা। তার মেয়ে লিমা আক্তার একটি পোশাক কারখানায় চাকুরী করতো। গত ৯ অক্টোবর রাত ৯টায় কারখানা থেকে কাজ শেষে ফেরার পথে রুবি গেইট এলাকা থেকে নিখোঁজ হয়।

এ ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে খুজে না পেয়ে পরের দিন বায়েজিদ বোস্তামী থানায় সাধারন ডায়েরী করা হয়। পরে গত সোমবার রাত ১১টায় তার দুসম্পর্কের ভাতিজা ওমর ফারুক লিমার বাবার মুঠোফোনে জানায় তার মেয়েকে অপহরন করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর এলাকার ঝাউচর গ্রামের সাগর মিয়ার ভাড়া বাড়িতে তৈয়ব হোসেন ও তার বন্ধুরা আটক করে জোরপ‚র্বক ধর্ষন করেছে। ধর্ষনের ফলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরন হলে স্থানীয় একটি বেসরকারী নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক লিমা আক্তারকে মৃত ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তৈয়ব হোসেন, তার দুই বন্ধু হাসান মিয়া ও আমজাদ হোসেন রায়হানকে গ্রেপ্তার করেছে।

গ্রেপ্তারকৃত তৈয়ব হোসেন কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বায়েরা গ্রামের জালাল মিয়ার ছেলে, হাসান একই এলাকার ভবানীপুর গ্রামের লাতু মিয়ার ছেলে এবং আমজাদ হোসেন রায়হান নোয়াখালীর হুগলি এলাকার মহিতুল্লার ছেলে। সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। পুলিশ প্রধান আসামি সহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা করেছে।

সাইফুল ইসলাম সুমন,অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!