সোনারগাঁয়ে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি।।

৩৭৯

চাদাঁ না পেয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার কাদিরগঞ্জ গ্রামে এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

থানায় দায়ের করা অভিযোগ উল্লেখ করা হয়, উপজেলার কাদিরগঞ্জ গ্রামে জাহাঙ্গীর হোসেন নামের এক ব্যবসায়ী ক্রয়সূত্রে মালিক হয়ে তার জমিতে বাড়ির নির্মান কাজ শুরু করেন। বাড়ির কাজ শুরু হওয়া পর থেকে কাদিরগঞ্জ গ্রামের আমিনুল ইসলাম সেন্টু ও সাইফুল ইসলাম ৩/৪ জন ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।

চাঁদা না দিলে তাদের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়ে শ্রমিকদের মারধর করে কর্মরত শ্রমিকদের প্রাণনাশের হুমকি দেয়। রোববার আবারো তারা চাদাঁ দাবি করে চাদাঁ দিতে অস্বীকার করায় করায় আমিনুল ইসলাম সেন্টু ও সাইফুল ইসলাম নেতৃতে ১০-১২ জনের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা চালিয়ে ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে।

এসময় বাড়ির আসবাবপত্র ও দরজা জানালা ভাংচুর করে হামলাকারীরা। পরে আহত জাহাঙ্গীর হোসেনের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহত জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, চাঁদা না পেয়ে আমার উপর হামলা করা হয়। হামলাকারীরা বাড়ির আসবাবপত্র ও দরজা জানালা ভাংচুর করে লুটপাট চালায়। অভিযুক্ত আমিনুল ইসলাম সেন্টুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে চাঁদা দাবির বিষয়টি অস্বীকার করেন।

তবে তিনি দাবী করেন কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি কথাকাটাকাটির ঘটনা ঘটে। সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আয়েশা আক্তার/অননিউজ24

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!