সোনারগাঁয়ে ভোট কারচুপির অভিযোগে দুই সদস্য প্রার্থীর মানববন্ধন, বিক্ষোভ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি।।

৩৪৮

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট চুরির অভিযোগ ও পুনঃগনণার দাবীতে মানববন্ধন করেছে দুই সদস্য প্রার্থীর সমর্থকরা।

বুধবার(২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানববন্ধন করে নির্বাচন অফিসার বরাবর ভোট পুনঃগনণার জন্য আবেদন করেন তারা।

উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের ১ নম্বর পরাজিত দুই সদস্য প্রার্থী হামিদুল ও অহিদুল ইসলামের সমর্থকদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত প্রায় এক ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধনে দুই শতাধিক নারী পুরুষ অংশ নেন। মানববন্ধনে অংশ নেন, সংরক্ষিত পরাজিত প্রার্থী অনিকা শাহাবুদ্দিন, মোক্তার হোসেন প্রমূখ।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া সদস্য পরাজিত প্রার্থী হামিদুল ইসলাম বলেন, গত ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১ নম্বর ওয়ার্ডে সাধারন সদস্য পদে তালা প্রতীকে প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। তার নির্বাচনী এজেন্টদেরদের কাছ থেকে সকাল ১১টায় ভয়ভীতি দেখিয়ে নির্বাচনের রেজাল্ট শীটে সাক্ষর নেয়। পরে ভোট কারচুপি করে আমার ভোট গননায় কম দেখিয়ে আমার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী ফুটবল প্রতীকের প্রার্থীও ভোট বেশী দেখিয়ে জয়ী ঘোষনা করে। নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি হয়েছে ভোটাররা আমাকে ভোট দিয়েছে ভোট পুন: গননা হলে আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবো। আমার অধিকার আদায়ের জন্য আজই আদালতে মামলা করব।

অপর পরাজিত সদস্য প্রার্থী অহিদুল ইসলাম বলেন, আমি নির্বাচনে আমার মোরগ প্রতিকের ভোট প্রতিদ্ব›দ্বী প্রাথী ফুটবল প্রতীকের ভোটের ব্যালটের সঙ্গে যোগ করে তার ভোট বেশী করা হয়েছে। আমার ভোট নিয়ে ফুটবল প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী ঘোষনা করা হয়েছে। এখন আমি যতক্ষণ পর্যন্ত আমার ভোট ফিরে না পাব ততোক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব। ভোট গননা হলে তিনি জয়ী হবেন বলে দাবি করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ইউসুফ-উর-রহমান জানান, পুনঃগনণার জন্য একটি লিখিত আবেদন করেছে। কিন্তু ভোট পুনঃগননা সম্ভব না বলে তাকে জানিয়ে দিয়েছি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!