স্ত্রীর প্রতারণায় সর্বস্বান্ত প্রবাসীর পরিবার :আদালতে মামলা

লাকসাম প্রতিনিধি ।।

১১৩

কুমিল্লার লাকসামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর ১ যুগের উপার্জনের সর্বস্ব ভোগের পর স্বামী-সন্তানকে অস্বীকার করে আত্মগোপন চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী স্বামী মহিন উদ্দিন বাদি হয়ে স্ত্রীর বিরুদ্ধে কুমিল্লার আদালতে গত ২২ নভেম্বর প্রতারণার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের আজগরা গ্রামের।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের বাসিন্দা মৃত আবদুর রহিমের ছেলে প্রবাসী মহিন উদ্দিনের স্ত্রী আছমা বেগম মিনু প্রতারণা করে প্রবাস জীবনের প্রায় ৮০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে এক ছেলে আবদুর রহমান (৮) ও এক মেয়ে মুন্নি আক্তার (১৩) কে রেখে আত্মগোপনে চলে যায়। স্ত্রীর এমন ঘটনা দেখে দিশেহারা এখন মহিন উদ্দিন। এ ঘটনায় স্বামী মহিন উদ্দিন বাদী হয়ে কুমিল্লার আদালতে একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করেছেন।

কয়েক বছর পূর্বে নাঙ্গলকোট উপজেলার পরিকোট গ্রামের প্রবাসী মফিজুর রহমানের মেয়ে আছমা আক্তার মিনুর সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। সংসার সুখে রাখতে মহিন উদ্দিন বিয়ের কয়েক মাস পর ওমানে পাড়ি জমায়।

মহিন প্রবাসে চলে যাওয়ার পর তার স্ত্রী এবং শাশুড়ি পেয়ারা বেগমের একাউন্টে তার আয়ের অর্থ পাঠান। চলচাতুরী করে স্ত্রীর মিনু মহিনের সকল অর্থ হাতিয়ে নিয়ে দুই সন্তানকে অস্বীকার করে গোপনে প্রবাসে পাড়ি দিয়েছেন বলে জানা যায়। মা হারা দুই সন্তান ও জীবনের আয়ের সকল অর্থ হারিয়ে মহিন আজ নিঃস্ব প্রায়।

মহিন উদ্দিনের মেয়ে মুন্নি আক্তার বলেন, বিদেশ যাওয়ার ট্রেনিং ক্যাম্পে মা আছে শুনে বাবাসহ আমরা গেলে আমার মা আমাদের ভাই-বোনকে চিনেনা বলে জানান। অনেক কান্নাকাটি করেও মায়ের মন গলাতে পারিনি। তাই মাকে ছাড়াই বাড়ি ফিরতে হয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আছমা আক্তার মিনুর মা পেয়ারা বেগম বলেন, আমার মেয়ে মিনু কোথায় ছলে গিয়েছে আমি জানি না। খবর পেলে আমি আপনাদের জানাবো। প্রতারণার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কিছুই জানেন না বলে জানান।

আয়েশা আক্তার/অননিউজ24

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!