স্পেনে আরও ৬৬১ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক।।

24
করোনায় বিপর্যস্ত ইউরোপীয় দেশ স্পেনে হু হু করে বাড়ছে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা। বাংলাদেশ সময় শনিবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত ওয়ার্ল্ডোমিটার ও পকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেয়া তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ১৯৮ জনে।
অপরদিকে, মৃতের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি আক্রান্তের সংখ্যা। যুক্তরাষ্ট্র, ইতালির ন্যায় এখানেও ইতিমধ্যে তা লাখ ছাড়িয়েছে। গত একদিনে ৭ হাজার ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে করে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ১৯ হাজার ছাড়িয়েছে। সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন সাড়ে ৩০ হাজার মানুষ।
করোনার থাবায় সাধারণ মানুষের সঙ্গে বিপর্যস্ত দেশটির স্বাস্থ্য ব্যবস্থাও। প্রতিনিয়ত আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় চিকিৎসকরা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। ভাইরাসটির দোপট থামাতে তিন সপ্তাহের লকডাউন চলছে। এর মাঝে ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে করোনা।
মরণ এ ব্যাধিতে শুধু ইউরোপেই ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। যেখানে সর্বোচ্চ মৃতের সংখ্যা ইতালিতে। ইউরোপের এই দেশটিতে আজ সকাল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১৪ হাজার ৬৮১। যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১৯ হাজার ৮২৭ জন।
গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস। উৎপত্তিস্থল চীনে ৮২ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হলেও সেখানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব কমে গেছে। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশে তা প্রকোট আকার ধারণ করেছে। উৎপত্তিস্থলের বাহিরে ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় গত ১১ মার্চ বিশ্বব্যাপী মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
অন্যদিকে, করোনার বর্তমান পরিস্থিতিকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সঙ্গে তুলনা করছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস। তিনি বলেছেন, ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর পৃথিবীর সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ করোনা ভাইরাস। এর ফলে যে মন্দা পরিস্থিতি তৈরি হতে যাচ্ছে, তা অতীতে কখনো দেখা যায়নি।’
এদিকে বিশ্বজুড়ে আজ শনিবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৯৮ হাজার ৪৫৬ জনে। আর প্রাণহানি ঘটেছে ৫৯ হাজার ১৬২ জনের। বিশ্বের দুইশর বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পরা প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে গত তিনমাসে সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ২৮ হাজার ৯২৩ জন।
আরো পড়ুনঃ