স্বাস্থ্যকর্মী-সাংবাদিকদের বিনামূল্যে পিপিই দিবে ‘স্নোটেক্স’

অনলাইন ডেস্ক।।

25
করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সংকটময় পরিস্থিতিতে ৫০ হাজার পিপিই (ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম) তৈরি করছে দেশের রফতানিমুখী পোশাক শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত স্নোটেক্স গ্রুপ। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে ১৭ হাজার পিপিই বিজিএমইএ, এমঅ্যান্ডএস এবং বুয়েটের সহায়তায় বিনামূল্যে সরবরাহ করা হবে স্বাস্থ্যকর্মী এবং সাংবাদিকদের মাঝে।
আগামী ২ এপ্রিলের মধ্যেই স্নোটেক্স এ ৫০ হাজার পিপিই তৈরি করবে বলে জানিয়েছে।
প্রাথমিকভাবে, শনিবার (২৮ মার্চ) প্রস্তুতকৃত ৫০০ পিপিই সরাসরি চিকিৎসকদের কাছে সরবরাহ করা হবে তাদের মতামত সংগ্রহের জন্য। পরবর্তীতে এ মতাতের প্রেক্ষিতে পিপিইর প্যাটার্ন পরিবর্তন বা সংযোজন করা হতে পারে। এছাড়াও, পিপিই বিক্রয়ের ক্ষেত্রে, সম্পূর্ণরূপে অলাভজনক হিসাবে কাজ করবে ‘স্নোটেক্স’। বিষয়টি জানিয়েছেন স্নোটেক্স গ্রুপের সহকারী ব্যবস্থাপক (পাবলিক রিলেশনস) শেখ রাহাত অয়ন।
প্রসঙ্গত ‘সুখি হও এবং সুখি করো’ প্রত্যয়ে এগিয়ে চলা ‘স্নোটেক্স’ ২০০০ সালে বায়িং হাউজের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। ২০০৫ সালে নিজেদের প্রথম কারখানা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে স্নোটেক্স অ্যাপারেলস। সেই সাফল্যের ধারাবাহিকতায় ২০১১ সালে ‘কাট অ্যান্ড সিউ’ এবং ২০১৪ সালে ‘স্নোটেক্স আউটারওয়্যার’এবং ২০১৯ সালে ‘স্নোটেক্স স্পোর্টসওয়্যার লিমিটেড’ প্রতিষ্ঠা করা হয়। আজকের ‘স্নোটেক্স’ হয়ে উঠেছে চারটি কারখানার একটি প্রতিষ্ঠান রূপে। এছাড়াও বাংলাদেশের মার্কেটে ‘সারা’ তাদের প্রথম লাইফস্টাইল ব্র্যান্ড । স্নোটেক্স আউটারওয়্যার গ্রিন ফ্যাক্টরি হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছে ইউএসজিবিসির লিড গোল্ড সার্টিফিকেটে। প্রতিষ্ঠানটি ১১ হাজারের বেশি মানুষের কর্মসংস্থান তৈরি করেছে।
আরো পড়ুনঃ