হিলিতে উঠতে শুরু করেছে দেশীয় নতুন পাঁতা পেঁয়াজ দাম কমায় খুশি ক্রেতারা

হিলি প্রতিনিধি।।

68

দিনাজপুরের হিলিতে বাজারগুলোতে উঠতে শুরু করেছে দেশীয় নতুন পাঁতা পেঁয়াজ। এদিকে পাঁতা পেঁয়াজ উঠার ফলে পেঁয়াজের দামও কমতে শুরু করেছে এতে করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম কমায় খুশি ক্রেতারা। সরেজমিন হিলি বাজার ঘুরে গেছে, কাঁচাবাজারের প্রায় সবদোকানেই শোভা পাচ্ছে দেশীয় নতুন পাঁতা পেঁয়াজ। প্রকারভেদে এসব পাঁতা পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে। আর দেশীয় পুরানো পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে।

হিলি বাজারে বাজার করতে আসা আব্দুল করিম ও শাহানাজ পারভীন বলেন, বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পেঁয়াজের দাম বাড়তির দিকে উঠে যায় যা গিয়ে দাড়ায় ৮০ থেকে ৯০ টাকার মধ্যে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পেঁয়াজের এমন দাম বাড়ার কারনে পরিবারের ব্যায় মেটাতে গিয়ে খানিকটা বিড়ম্বনায় পড়তে হয় আমাদের মতো সাধারন মানুষদের। অবশ্য কিছুদিন পরেই দেশীয় পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ার কারনে সেই দাম কিছুটা কমতে থাকে, বর্তমানে দেশীয় পুরানো পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে। তবে গতকয়েকদিন হলো বাজারে নতুন দেশীয় পাতা পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। বর্তমানে এসব পাঁতা পেঁয়াজ ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এই পাতা পেঁয়াজ আসার ফলে দাম যেমন কিছুটা কম হচ্ছে তেমনি পেঁয়াজের চাহীধাও যেমন মিটছে তেমনি এর পাতাও মেশাল দিয়ে পেঁয়াজের পরিমানও কম লাগছে।

হিলি বাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতা মনির হোসেন বলেন, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে গড়ে প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হতো। আমদানিকৃত এসব পেঁয়াজের তুলনামুলক দাম কম হওয়ায় বাজারে এর চাহীদাও বেশ ছিল। কিন্তু ভারত সরকার বেশ কয়েকমাস ধরে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেওয়ায় বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। এতে করে দেশের বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দেশীয় পেঁয়াজের চাহীধা বাড়তে থাকে যার কারনে পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকে। তবে বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানি হওয়ায় গতবছর ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের কারনে পেঁয়াজের মুল্যের যে উদ্ধমুখি হয়েছিল এবারে সেরকম কিছু হয়নি। দাম অনেকটা নিয়ন্ত্রনের মধ্যেই ছিল, সম্প্রতি দেশীয় নতুন পাতা পেঁয়াজ আসার ফলে পেঁয়াজের চাহীদা আরো একটু কমেছে। বর্তমানে পাঁতা পেঁয়াজ ৩ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হচ্ছে, আর মানুষজন দাম কম হওয়ায় এই পেঁয়াজ বেশী নিচ্ছেন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!