হোয়াটস অ্যাপে কিউআর কোড স্ক্যানে ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস

অনলাইন ডেক্স।।

102
আপনি হোয়াটস অ্যাপ কী করছেন তার সব কিছুই জানে তৃতীয় কোনও ব্যক্তি! অ্যাকাউন্ট ‘হ্যাক’ হলে এমন হতেই পারে।ভাবছেন কি করে? এই হ্যাকিং হয়ে থাকে ‘কিউইর হাইজ্যাক’ কোডের মাধ্যমে।অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, অফার-সংক্রান্ত প্রতিদিন কোনও না কোন ই-মেইল আসে। যেখানে অফার নিতে হলে কিউআর কোড দেওয়া হয়। সেটা আপনাকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে স্ক্যান করতে বলা হয়। সেটি স্ক্যান করলেই আপনার অ্যাকাউন্টের সব তথ্য চলে যাবে হ্যাকারের কাছে। খবর জিনিউজের
অনেক সময় বিভিন্ন পার্টির কাছে কিউআর কোড থাকে। যেটা স্ক্যান করে নাম নথিভুক্ত করতে বলা হয়। তাহলে পাওয়া যায় লোভনীয় ছাড়।তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন,অনেক ক্ষেত্রে হ্যাকাররা হোয়াটস অ্যাপের মধ্যে একটি কৃত্রিম কিউআর কোড তৈরি করে। যেটা আসলে ‘কিউআর হাইজ্যাক’ কোড।তারা বলছেন, এই ধরণ একদম নতুন। একটি বেসরকারি সংস্থা এই ধরনের সাইবার ক্রাইমের ওপর কাজ করছে। তাদের দাবি, হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাক করার জন্য এই পদ্ধতি বেছে নেওয়া হয়েছে। কোনও ব্যক্তির যাবতীয় তথ্য হ্যাকার পেয়ে যাচ্ছে। ইচ্ছা মতো ব্যবহার করতে পারে। করতে পারে ব্ল্যাকমেইলও!
আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে কি করবেন? প্রথমেই হোয়াটস অ্যাপটি আনইনস্টল করতে হবে। পুনরায় নতুন করে ইনস্টল করতে হবে। যার ফলে আপনার সিকিউরিটি কোড বদলে যাবে। সেটা না করলে হ্যাকার তার ইচ্ছা মতো যতদিন খুশি আড়ি পাততে পারে।
আরো পড়ুনঃ