১০ হাজার লোকের হাতে খাদ্য পৌছে দিলেন বাহালুল চেয়ারম্যান

68

নিজস্ব প্রতিবেদক।। করোনা সংকটের শুরু থেকে চলমান মহামারীতেও নিরবিচ্ছিন্নভাবে জনগনের পাশে রয়েছেন কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পাঁচথুবী ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন বাহালুল। করোনা প্রাদুর্ভাবের সূচনাতে সচেতনতামূলক প্রচারনা, সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণের মধ্য দিয়ে নামেন করোনা যুদ্ধ। বর্তমানে অসহায় কর্মহীন মানুষের খাদ্য জোগান সহ আর্থিক সংকটে পড়া সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন সর্বশক্তি নিয়ে। আতংকিত মানুষের পাশে থেকে সাহস জোগাচ্ছেন। খাদ্য সহায়তার পাশাপাশি এখন সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে ছুটে চলেছেন ইউনিয়নের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে। ইতিমধ্যে খাদ্য সহায়তা প্রদান করছেন ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার মানুষকে।

শনিবার ( ২৩ মে) সকালে ইউপি পরিষদ মাঠে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের ঈদ উপহার হিসেবে দেওয়া সাড়ে ৬’শ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড.আমিনুল ইসলাম টুটুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হোসনেয়ারা বেগম বকুল। এসময় উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ সম্পাদক অধ্যাপক জিয়াউল ইসলাম জীবন,ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমুল হাছান হিরন, ইউপি সদস্যবৃন্দ সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন বাহালুল জানান, করোনা সংকটের শুরুতে নিজ উদ্যোগে ১ হাজার লোককে খাদ্য সহায়তা দিয়ে কর্মহীন ও অসহায়দের পাশে দাঁড়ান। পরবর্তীতে সরকারীভাবে পাওয়া প্রায় ৪ হাজার লোকের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেন। কুমিল্লা সদর আসনের এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের দেওয়া খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন ১ হাজার লোকের মাঝে। বর্তমানে ঈদকে সামনে রেখে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে দেওয়া হচ্ছে সাড়ে ৬ শত লোকের মাঝে ঈদ সামগ্রী। এছাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান,স্থানীয় দলীয় নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন উৎস মিলে ইউনিয়নের প্রায় ১০ হাজার লোক খাদ্য সহায়তা পেয়েছে। আমাদের অভিভাবক বীরমুক্তিযোদ্ধা হাজী বাহার এমপি ঘোষনা দিয়েছেন কুমিল্লায় একজন লোকও অভুক্ত থাকবে না। আমি এমপি বাহারের একজন আদর্শের কর্মী হিসেবে নেতার নির্দেশ বাস্তবায়নে দিন-রাত পাঁচথুবীবাসীর পাশে রয়েছি।

ইউনিয়নবাসীর উদ্দেশ্যে চেয়ারম্যান বাহালুল বলেন, আসুন আমরা সবাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি,স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি। তাহলে আমরা নিজেরা রক্ষা পাব ,পরিবার ও সমাজ রক্ষা পাবে। না হয় মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হবে।

উল্লেখ্য,বাংলাদেশ সহ বিশ্বব্যাপী করোনা সংকট সৃষ্টি হলে তৃণমূলের এ জনপ্রতিনিধি গত ১৪ মার্চ থেকে এলাকায় মাইকিং ও লিফলেট বিতরণের মধ্যদিয়ে এলাকায় করোনা সচেতনা অভিযানে নামেন। ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ব্যাপক হারে বিভিন্ন সচেতনতামূলক সামগ্রী বিতরণ শুরু করেন। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ওইসময় তিনি ৩ হাজার পিস সাবান,২ হাজার পিস মাস্ক ও ১ হাজার বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়ে ব্যাপক প্রশংসা কুঁড়িয়েছেন। বর্তমানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সুশৃংখলভাবে ত্রাণ বিতরণ তিনি আবারো আলোচনায় এসেছেন।কুড়িয়েছেন ব্যাপক প্রশংসা।

আরো পড়ুনঃ