৭ মার্চের ভাষণ ছিল যুদ্ধজয়ের মন্ত্র-এড. টুটুল

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।

83

রোববার (৭ মার্চ) বিকালে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মো. আমিনুল ইসলাম টুটুল ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিনসহ অতিথিরা। কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. মো. আমিনুল ইসলাম টুটুল বলেছেন, আমাদের এই সমাজে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস নিয়ে বিকৃত করার পাকিস্তানি চেতনাধারী লোকের সংখ্যা এখনও অনেক।

তবু আন্তর্জাতিক খ্যাতি বয়ে এনেছে জাতির পিতার অবিস্মরণীয় ভাষণ। ২০১৭ সালের ৩১ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড’-এর স্বীকৃতি দিয়েছে ইউনেস্কো। যে তালিকার মাধ্যমে ইউনেস্কো বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা ও ঐতিহ্য সংরক্ষণ করে সেখানে বঙ্গবন্ধু তখন থেকে আরো ঔজ্জ্বল্য নিয়ে মূর্ত। ৭ মার্চের ভাষণের প্রতিটি শব্দ ও বাক্য ছিল একটি পরিকল্পিত জনযুদ্ধের নির্দেশনা। আমাদের জন্য ছিল যুদ্ধজয়ের মন্ত্র।’

গতকাল রোববার (৭ মার্চ) বিকালে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এড. টুটুল এসব কথা বলেন।‘জয় বাংলা’ দলীয় নয়,জাতীয় স্লোগান আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, এই স্লোগানটি বঙ্গবন্ধু দিয়েছেন। এই স্লোগানের জনক বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম। এ কারণে মহান মুক্তিযুদ্ধে জয় বাংলা স্লোগান ছিল প্রতিটি মুক্তিযোদ্ধার প্রাণস্পন্দন।’

কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান তারিকুর রহমান জুয়েল। বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. ইকবাল হাছান,শিক্ষা অফিসার দেলোয়ার হোসেন মজুমদার প্রমুখ। পরে অতিথিরা বিভিন্ন প্রতিযোগীতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

আরো পড়ুনঃ
error: Content is protected !!