জামায়াত-বিএনপি, মাদক ব্যবসায়ীদের স্থান মহানগর আওয়ামী লীগে হবে না -এমপি বাহার

3

মোঃ জহিরুল হক বাবু।।
কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্বা আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর ৭৫ পরবর্তীতে কুমিল্লায় যেখানে আওয়ামী লীগের নাম নেওয়ার মানুষ পাওয়া যেত না সেখানে আমি বাড়ি বাড়ি ঘুরে সংগঠন তৈরী করেছি।

কুমিল্লার কিছু কিছু এলাকায় এখনো মোড়লের রাজনীতি চলছে। কুমিল্লায় আর মোড়লের রাজনীতি চলতে দেওয়া হবে না। মোড়ল প্রথা, নাশকতা-অরাজকতা রুখতে তৃণমূলে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে। উন্নয়নের দাবি করবেন না, নিজ দায়িত্ব থেকে উন্নয়ন করে দেব। সংগঠনকে মজবুত করুন। দলের পদ ভাঙ্গিয়ে কারো উপর নির্যাতন দূর্নীতি করলে কঠোর শাস্তি পেতে হবে। জামায়াত-বিএনপি, ফেন্সিডিল-ইয়াবা ব্যবসায়ীদের স্থান মহানগর আওয়ামী লীগে হবে না।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর ইঞ্জিনিয়ারর্স ইন্সটিটিউট প্রাঙ্গনে মহানগর ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাজী বাহার এমপি এসব কথা বলেন।

হাজী বাহার এমপি আরো বলেন, কুমিল্লার রাজনৈতিক ময়দানে ৫০ বছর সততার সাথে রাজনীতি করেছি। সাধারন মানুষের পাশে দাড়িয়েছি, উপকার করেছি, কাজ করে দিয়েছি বিনিময়ে এককাপ চা খাইনি, দুর্নীতি করেনি। কারো পকেটের দিকে তাকাই নি,চেহারা দিকে তাকিয়েছি। শুধু আপোষ করেনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রশ্নে। জামায়াত শিবিরের সাথে আপোষ করেনি। সংবাদ সম্মেলন করে আমার বিরুদ্ধে যারা আজ সততা নিয়ে কথা বলছে তারাই মানুষের উপর অত্যাচার করেছে, মানুষের সম্পদ লুট করেছে। কুমিল্লার ছাত্র-অভিভাবকদের টাকায় গড়া কুমিল্লা মডার্ণ স্কুল থেকে আফজাল খান পরিবার শত শত কোটি টাকা লুটপাট করেছে। দলের নাম ভাঙ্গিয়ে কুমিল্লায় আর কাউকে লুটপাতের রাজত্ব কায়েম করতে দেওয়া হবে না। আমি কুমিল্লাকে শান্তির কুমিল্লা, চাঁদাবাজ মুক্ত কুমিল্লা,মাদক মুক্ত কুমিল্লা গড়তে চাই। শেখ হাসিনা দূর্গ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।

কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের এর সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাতের সভাপতিত্বে ওই কর্মী সভায় বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এড.জহিরুল ইসলাম সেলিম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সফিউল আলম বাবুল, কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক কাজী আবুল বাসার,মহানগর আওয়ামী লীগের আবদুল আলিম কাঞ্চন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল হাই বাবলু,চিত্ত রঞ্জন ভৌমিক, জাগ্রত মানবিকতার সাধারন সম্পাদক তাহসিন বাহার সূচনা।

মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক এড.আনিসুর রহমান মিঠু,মহানগর শ্রমিকলীগের আহবায়ক আবদুল কাইয়ুম, মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগ সাধারন সম্পাদক সাদেকুর রহমান পিয়াস, মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক আবদুল আজিজ শিহানুক প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক কবির হোসেন ভূইয়া। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মহানগর যুবলীগের সদস্য নাজমুল ইসলাম শাওন।

এসময় মঞ্চে আরো উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা মহনগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আলী মনসুর ফারুক, প্রচার সম্পাদক জহিরুল কামাল, আইন সম্পাদক এড.আমজাদ হোসেন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক সাদেকুর রহমান রানা, আদর্শ সদর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তারিকুর রহমান জুয়েল, মহনগর আওয়ামী লীগে উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শাহেরীন সাহের,সদস্য মিজানুর রহমান ইরান, গোলাম মাওলা জসিম, কাইয়ুম খান বাবুল, খোরশেদ আলম, হাজী আবদুল মালেক ভূইয়া, হেলাল উদ্দিন,মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক কাউন্সিলর হাবিবুল আল আমিন সাদি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিন্টু সহ মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ এলাকার বিভিন্ন পেশার বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

২১ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি কবির ভূঁইয়া, সেক্রেটারী গোলাম মোস্তফা মজুমদার।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্বা আ.ক.ম বাহাউদ্দির বাহার এমপি মো. কবির হোসেন ভূইয়াকে সভাপতি ও গোলাম মোস্তফা মজুমদার কে সাধারন সম্পাদক করে কুমিল্লা মহানগর ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ৬৯ সদস্যের কমিটির নাম ঘোষনা করেন। দলের ত্যাগী ও রাজপথের পরীক্ষিত কর্মীদের নিয়ে নবীন-প্রবীনের সমন্বয়ে গঠিত নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দকে নেতা-কর্মীরা বিপুল করতালির মাধ্যেমে অভিনন্দন জানান।

আরো পড়ুন