কিশোরীকে গণধর্ষণ: তিনজনের জবানবন্দি, একজন রিমান্ডে

অনলাইন ডেক্স।।

52
রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে এক কিশোরীকে (১৩) গণধর্ষণের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেফতার তিনজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তারা হলেন- হাসান, সিফাত ও সবুজ।
শনিবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম মিল্লাত হোসেন তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন।
অন্যদিকে আসামি রনিকে আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মিল্লাত হোসেন একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এছাড়া ধর্ষিতার বান্ধবীকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করলে ঢাকা মহানগর হাকিম মিল্লাত হোসেন তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি হেমায়েত উদ্দিন হিরোন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বি এম মশিউর রহমান বলেন, গণধর্ষণে যে বান্ধবী সহায়তা করেছিল তাকেসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের আনুমানিক বয়স ১৪-১৫ বছর। একজন পলাতক। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার চারজন ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।
ভুক্তভোগীর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় কামরাঙ্গীরচরের পূর্ব রসুলপুর এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনের দ্বিতীয় তলায় নিয়ে ওই কিশোরীকে গণধর্ষণ করা হয়। কাছেই একটি এলাকায় বসবাস করা ওই কিশোরীকে গতকাল বিকেলে তার বান্ধবীর বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়।
বান্ধবীর সহায়তায় কিশোরীটিকে ধর্ষণ করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয় পুলিশ। ওই ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেন। এরপর পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে মাঠে নামে।
ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।
আরো পড়ুনঃ