সরকারি হাসপাতালের ওষুধসহ পরিচ্ছন্নতাকর্মী আটক

অনলাইন ডেস্ক।।

9
রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানাধীন জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানের (নিটোর) বিপুল পরিমাণ ওষুধসহ মো. আব্দুর রব (৪৫) নামে এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে আটক করেছে র‌্যাব।
র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শেরেবাংলা নগর থানা এলাকার মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের পেছনে একটি টং ঘরের ভেতর সরকারি ওষুধ ও স্যালাইন চুরি করে মজুত রেখে পরে বিভিন্ন দোকানে বিক্রয় করার অভিযোগ পাওয়া যায়। তারই সূত্র ধরে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব-২ এর একটি দল। পরে হাতেনাতে চোরাই স্যালাইনসহ আব্দুর রবকে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে ১৫০ পিস স্যালাইন, প্লাস্টার ও গজ উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আব্দুর রব জানান, তিনি শ্যামলীর ১ ও ২ নম্বর রোডের ময়লা পরিষ্কারের কাজ করেন। চিকিৎসকরা ভর্তিকৃত রোগীদের অপারেশনের জন্য যে সকল ওষুধ লিখে দেন তার মধ্য থেকে প্রয়োজনীয় ওষুধ ছাড়া অতিরিক্ত ওষুধ হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে থেকে যায়। তিনি প্রতিদিন ভোরবেলা এবং দিনের বিভিন্ন সময় ময়লা পরিষ্কারের অজুহাতে পঙ্গু হাসপাতালের ভেতরে প্রবেশ করে রোগীদের ওষুধ ও অপারেশন থিয়েটারের অতিরিক্ত ওষুধ হাসপাতালের কর্মচারীদের সহযোগিতায় চুরি করে নিয়ে আসেন এবং হাসপাতালের বিপরীতে মুক্তিযোদ্ধা জাদুঘরের পেছনে ডাস্টবিনের পশ্চিমে খালপাড়ে নিজের টং ঘরের মধ্যে মজুত করে রাখেন।
র‌্যাব আরও জানায়, হাসপাতালের বর্জ্য আনার কাজটি তিনি এবং তার লোকজন করে থাকেন। বর্জ্য আনার ফাঁকে বিভিন্নভাবে ওষুধ, গজ, ব্যান্ডেজ ও স্যালাইন এনে মজুত রেখে পরে সেগুলো আশপাশের বিভিন্ন ফার্মেসিতে বিক্রি করে।
র‌্যাব-২ এর ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-২ এর কমান্ডার মেজর এইচ এম পারভেজ আরেফিন বলেন, সরকারি হাসপাতালের ওষুধ ময়লার সঙ্গে বের করে গোপনে অন্য ফার্মেসিতে বিক্রি করে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা গোয়েন্দা তৎপরতা চালাই। পরে রোববার সন্ধ্যায় তাকে শেরেবাংলা নগর থানা এলাকা থেকে চোরাইকৃত স্যালাইনসহ আটক করতে সক্ষম হই।কমান্ডার আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জানতে পারি আব্দুর রব হাসপাতালের অসাধু কর্মচারীদের নিয়ে একটি সিন্ডিকেট তৈরি করে দীর্ঘদিন ধরে ওষুধ চুরি করে আশপাশের বিভিন্ন ফার্মেসিতে বিক্রি করে আসছেন। এ ঘটনায় র‌্যাব বাদী হয়ে শেরেবাংলা থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।
আরো পড়ুনঃ