চীনে করোনায় আক্রান্ত ফেলাইনি, ঝুঁকিতে একই ট্রেনের যাত্রীরা

অনলাইন ডেস্ক।।

5
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহান শহর। সে দেশে ভাইরাসটি সর্বপ্রথম ছড়ালেও, কোনো শীর্ষস্থানীয় ফুটবলার এতদিন আক্রান্ত হননি করোনায়। তবে জার্মানি ও ইতালিতে অন্তত ছয়জন ফুটবলারের শরীরে পাওয়া গিয়েছে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি।
এবার চীনেও এক ফুটবলার আক্রান্ত হলেন করোনাভাইরাসে। চাইনিজ সুপার লিগের দল শ্যানডং লুনেন তাইশানের হয়ে খেলা বেলজিয়ান ফুটবলার মারুইন ফেলাইনির কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল এসেছে পজিটিভ। ফলে চাইনিজ লিগে প্রথম ফুটবলার হিসেবে করোনায় আক্রান্ত হলেন তিনি।
ফেলাইনির করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে চীনের জিনান প্রদেশের স্থানীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। গত ২০ মার্চ কোভিড-১৯ টেস্ট করা হয়েছে ফেলাইনির। সেদিন ট্রেনে করে ক্লাব থেকে জিনানে গিয়েছিলেন ফেলাইনি। ফলে সেদিন ঐ ট্রেনে থাকা সবাইও এখন করোনা ঝুঁকিতে পড়ে গেছেন।
তবে আশার খবর হলো, করোনা নিয়ন্ত্রণে দারুণ সফলতাই দেখিয়েছে চীন। ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল উহানে নেই আর কোনো করোনা রোগী। গতকাল উহান করোনামুক্ত হওয়ার আনন্দে আতশবাজি দিয়ে উৎসবও করেছে তারা।
উল্লেখ্য, ফেলাইনির আগে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন জার্মান ক্লাব হ্যানোভার ৯৬’র টিমো হুবার্স, ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসের ড্যানিয়েল রুগানি, ব্লেইস মাতুইদি, পাওলো দিবালা এবং এসি মিলানের পাওলো মালদিনি ও ড্যানিয়েল মালদিনি।
আরো পড়ুনঃ