সেনবাগে শিশু হত্যায় ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক।।

7
নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ডুমুরিয়া ইউনিয়নে দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের সময় পায়ের নিছে চাপা পড়ে আরিফুল ইসলাম (৮) নিহতের ঘটনায় আবুল কালাম আজাদ নামে এক ইউপি সদস্যকে (মেম্বার) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদিকে আছর নামাজের পর নিহতের লাশ দাফন করে সকল অপরাধীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।
রবিবার দুপুরে কৌশলে থানায় ডেকে এনে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আবুল কালাম আজাদ ডুমুরিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড জিরুয়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার ভলির ছেলে। তিনি ওই ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার।
জানা গেছে, গত শনিবার বিকেল ৫টার দিকে সেনবাগ থেকে ছেড়ে যাওয়া ইউরিয়া সার ভর্তি একটি ট্রাক ডুমুরিয়া ইউপির হরিণকাটা পুলের কাছে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে স্থানীয় সেলিমের চা দোকানের ভিতরে ঢুকে পড়ে। এতে চা দোকানদার সেলিম আহত হয়। খবর পেয়ে ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার আজাদ ও তার লোকজন ঘটনাস্থল এসে ট্রাকের সার লুট করে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন তাতে বাধা দেয়। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজনের সাথে আজাদ মেম্বারের লোকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় ঘটনাস্থলে শিশু আরিফুল ইসলাম পদদলিত হয়ে গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা আহত আরিফকে দ্রুত উদ্ধার করে সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল বাতেন জানান, ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে আজাদ মেম্বারকে প্রধান আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত আজাদ মেম্বারকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
আরো পড়ুনঃ