‘একজন আদর্শ শিক্ষক শিক্ষিত জাতি গঠনের মূল কারিগর’…..মুরাদনগরে এমপি হারুন

মুরাদনগর প্রতিনিধি।।

৬১

এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি আলহাজ¦ ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এমপি বলেছেন, শিক্ষিত জাতি ছাড়া কোন দেশের উন্নয়ন অভিষ্ঠ লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব নয়। আর একজন আদর্শ শিক্ষক শিক্ষিত জাতি গঠনের মূল কারিগর। তাই শিক্ষিত জাতি গঠনের লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের নিকট তিনি হবেন একজন আদর্শ শিক্ষক ও অভিভাবক। তিনি কখনও হবেন সুশৃংখল জাতি বিনির্মাণে যোগ্য নেতা তৈরির আধুনিক কারিগর এবং শিক্ষার্থীর সুপ্ত প্রতিভা বিকাশ ও উন্নয়নের এক অনিবার্য মাধ্যম।

আলহাজ¦ ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এমপি শনিবার দুপুরে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা পরিষদের কবি নজরুল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগণের মাসিক সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাশ।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ফওজিয়া আক্তারের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক গাজীউল হক চৌধুরী, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি আবু কাউছার ভুইয়া, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, উপজেলা শিক্ষক সমিতির নবনির্বাচিত আহবায়ক বশিরুল ইসলাম মোল্লা, প্রধান শিক্ষক রেবেকা সুলতানা ও ফয়েজুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন, উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জামাল উদ্দিন। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন, নোয়াকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাওলানা অলী উল্লাহ সুলতানী ও গীতা পাঠ করেন, গাইটুলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিলা রানী সাহা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন আরো বলেন, সরকার শিক্ষকদের জাতি গঠনের কারিগর হিসেবে তাদের সবার্ধিক মযার্দার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন। কারণ যে জাতি যত শিক্ষিত সে জাতি তত উন্নত। তাই কোনো জাতিকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার জন্য শিক্ষকদের মযার্দা দেওয়া প্রয়োজন। বতর্মান সরকার শিক্ষকদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধিসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করে শিক্ষকদের সবোর্চ্চ মযার্দায় অধিষ্ঠিত করার চেষ্টা করেছেন। ন্যায়-বিচার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজন সৎ মানুষ, শিক্ষিত মানুষ ও জ্ঞানী মানুষের। সোনার বাংলা বিনির্মাণ সময়ের দাবি, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন। শিক্ষকমÐলী যারা আগামীর জন্য মানুষ সৃষ্টি করেন তাদের দায়িত্ব অনেক বেশি। একজন শিক্ষকই পারেন একজন সুন্দর ও জ্ঞানী মানুষ তৈরি করতে। মানুষ যদি জ্ঞানী না হয় এবং জ্ঞানসমৃদ্ধ না হয় তাহলে সমাজের কোনো কাজে আসতে পারে না।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!