কালীগঞ্জে অজ্ঞান অবস্থায় বৃদ্ধা মাকে হোটেলে ফেলে গেল পেটের সন্তান, উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করল পুলিশ

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ

২৫১

আমার মা এখানে থাক, ওষুধ কিনে এনে নিয়ে যাচ্ছি। ছেলে পরিচয়ে খাবার হোটেলে অজ্ঞান এক নারীকে বসিয়ে রেখে চলে গেলেন ছেলে পরিচয়দানকারী এক যুবক। ফিরে আসেনি সেই যুবক। হোটেলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান বৃদ্ধা মহিলা (৬০)।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানার এসআই আলামিন হোসেন ও সঙ্গীয় ফোর্স এসে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বৃদ্ধা মহিলার নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধা ৬ টার দিকে ঝিনাইদহ কালীগঞ্জ শহরের শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজে। শাহী নান্না বিরিয়ানি হাউজের ম্যানেজার রিফাত হোসেন জানান, দুপুর দেড়টার দিকে বৃদ্ধা মহিলাকে সাথে নিয়ে এক যুবক আসেন। একদম পিছনের দিকে বসেন। ১০/১৫ মিনিট পর ওই ছেলেটি তাকে বলেন, মা এখানে থাক, ওষুধ কিনে এনে নিয়ে যাচ্ছি। ওই যুবক আর ফিরে আসেনি। বসেই থাকেন ওই মহিলা। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এরপর পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। এরপর তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা: ইমতিয়াজ আলম জানান, অজ্ঞাত মহিলার চিকিৎসা চলছে। রাত সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত জ্ঞান ফিরে আসেনি। এখনো তার জ্ঞান ফিরে আসেনি। কিন্তু তার অক্সিজেন লেভেল ও প্রেসার ঠিক আছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!