কুমিল্লায় ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত ২

কুমিল্লা প্রতিনিধি।

৭২

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার দারোরা ইউনিয়ন পালাসুতা গ্রামে ডাকাত সন্দেহে গণপিটুনিতে দুইজন প্রাণ হারিয়েছেন। নিহতরা হলেন- মুরাদনগর উপজেলার কাজিয়াতল গ্রামের আব্দুস ছালামের ছেলে মো. নুরু মিয়া ও একই উপজেলার পালাসুতা গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিন ছেলে ইসমাইল হোসেন।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) রাত আনুমানিক সাড়ে ১২ টার দিকে এ গণপিটুনির ঘটনা ঘটে।

পরে পুলিশ আহত অবস্থায় ৩ জনকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, পালাসুতা গ্রামের এক বাড়িতে আশ্রয় নেওয়া বহিরাগত তিনজনকে ডাকাত সন্দেহে সংঘবদ্ধ হয়ে পিটুনি দেয় গ্রামের লোকজন। তাদের দাবি, কেওট গ্রামে ডাকাতি করতে গিয়ে ধাওয়া খেয়ে তারা ওই বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন। পরে পরিবারের লোকজন তাদের দেখতে পেয়ে মসজিদের মাইকে এলাকায় ডাকাত ঢুকে পড়েছে বলে ঘোষণা করেন।

দারো ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন জানান, রাতে তিন ‘ডাকাতকে’ গণপিটুনি দেওয়া হয়েছে। পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

মুরাদনগর থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গুরুতর আহত তিন ডাকাতকে উদ্ধার করে কুমিল্লা হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে ডাক্তার তাদের দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া আহত একজন চিকিৎসাধীন, যার অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিহত দুইজন আসলেই ডাকাত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!