কুমিল্লা জেলা পরিষদ নির্বাচন প্রচারণায় এগিয়ে টিউবওয়েল প্রতীকের প্রার্থী ভার্ড কামাল

নিজস্ব প্রতিনিধি।।

৭১

১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে কুমিল্লা জেলা পরিষদ নির্বাচন।আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচন ২০২২ কুমিল্লা জেলা চৌদ্দগ্রাম ওয়ার্ড থেকে ভার্ড কামাল চক্ষু হাসপাতালের নির্বাহী পরিচালক ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, চৌদ্দগ্রাম থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সাবেক রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক মুজিবের আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত এমরানুল হক কামাল জেলা পরিষদ সদস্য পদে কুমিল্লা জেলার গুরুত্বপূর্ণ ওয়ার্ড চৌদ্দগ্রাম উপজেলা থেকে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন।

এমরানুল হক কামাল যাকে সবাই চিনে ভার্ড কামাল নামেএই উপজেলায় দলীয় মনোনয়ন প্রার্থী না থাকায় বেশ কয়েকজন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

সমাজসেবক, মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে পরিচিত এমরানুল হক কামাল আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মী সহ ভোটারদের সাথে গনসংযোগ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা শুরু করেন।

জীবনের বাকি সময়টুকু চৌদ্দগ্রামের মানুষের সেবার মাধ্যমে কাটানোর ইচ্ছায় নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন এবং সকলের দোয়া কামনা করেন তিনি।
চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কনকাপৈত ইউনিয়নের পন্নারা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নেওয়া এমরানুল হক কামাল কর্মজীবনে একজন সফল মানুষ। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ভলান্টারি অ্যাসোসিয়েশন ফর রুরাল রুরাল ডেভলপমেন্ট সংক্ষেপে যা বর্তমানে বাংলাদেশ ও বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা ভার্ড নামে পরিচিত। ১৯৮৮ সালে এই সংস্থা গঠন করার পর থেকে সমাজের গরিব অন্ধ মানুষকে অপারেশন করে চোখের আলো প্রদানের মাধ্যমে কাজ শুরু করে আজ একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান রূপান্তর হয়েছে। হাসপাতাল উদ্যোগে কুমিল্লা জেলা ও বৃহত্তর সিলেট জেলায় বিভিন্ন দাতা সংস্হার সহযোগীতায় হাজার হাজার গরীব মানুষের চোখ অপারেশন করে চোখের আলো ফিরিয়ে দিয়েছেন বিনামূল্যে এজন্য দেশ বিদেশের বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার এ ভূষিত হয়েছেন।

ইতিমধ্যে তিনি চৌদ্দগ্রামের তৃণমূলের নেতাকর্মী ও ভোটারদের সাথে যোগাযোগ করায় নেতাকর্মীরা উৎসাহী হয়ে উঠেছে। জেলা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার আশা প্রকাশ করে এমরানুল হক কামাল বলেন ব্যবসা-বাণিজ্য জীবনের ব্যবসা-বাণিজ্য শুরু করে সফল হয়েছি আবার নিজের ছেলেমেয়েরা করে প্রতিষ্ঠিত হয়ে আজ আমার ব্যবসা-বাণিজ্য ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান দেখাশোনা করার দায়িত্ব নিয়েছে। তাই জীবনের এই বয়সে এসে আমার নেতা সাবেক সফল রেলপথ মন্ত্রী জননেতা মুজিবুল হক মুজিবের একজন সহযোগী হিসাবে চৌদ্দগ্রামের সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করেন বাকি জীবনটা কাটিয়ে যেতে চাই। চেয়ারম্যান, মেম্বার সহ যারা জেলাপরিষদ নির্বাচনের ভোটার তাদের সাথে মতবিনিময় করে বুঝেছি তারা আমাকে চায়। তাদের ভালোবাসা নিয়ে আমি কাজ করতে চাই।

উল্লেখ্য ১৯৭০ দশকের সালে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আসন্ন কুমিল্লা জেলা পরিষদ নির্বাচনে চৌদ্দগ্রাম ওয়ার্ড থেকে সদস্য পদের নির্বাচন করার আশা প্রকাশ করে ইতিমধ্যে চোদ্দগ্রামের তৃণমূলের ব্যাপক গণসংযোগ করেছেন । তিনি আরো আশা প্রকাশ করে বলেন আমার প্রিয় নেতা মুজিবুল হক মুজিব যিনি চৌদ্দগ্রাম কে আজ আধুনিক চৌদ্দগ্রামে সাজিয়েছেন, আমি যদি জেলা পরিষদ নির্বাচনে যদি চৌদ্দগ্রাম উপজেলা থেকে সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হই তাহলে আমি চৌদ্দগ্রামে আমার নেতা মুজিবুল হক মুজিবের হাত কে শক্তিশালী করতে ও আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাবো ইনশাল্লাহ। আমার এলাকার জনগণের সেবা করবো ইনশাআল্লাহ। আমি সকলের সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করি। আমি নেতাকর্মী ও ভোটারদের দ্বারেদ্বারে গিয়ে ভালো সাড়া পাচ্ছি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!