কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ার আখড়া বাড়িতে ৩ দিনব্যাপী লালন স্মরণোৎসব

জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল কুষ্টিয়া

৬৮

আধ্যাতিক সাধক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের ১৩২ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে ১৭ই অক্টোবর’২২ রোজ সোমবার থেকে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর ছেঁউরিয়া আখড়া বাড়িকে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপী লালন শাহের তিরোধান। এ উপলক্ষে ছেঁউড়িয়ায় কালিগঙ্গা নদীর তীরে লালন আঁখড়া বাড়িতে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আখড়া বাড়িতে দেশ বিশে থেকে আসতে শুরু করেছেন ভক্তবৃন্দরা। উৎসবের ৩ দিন লালনের আঁখড়াবাড়ির ভিতরে ও আশপাশের অঞ্চল জুড়ে ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে বাউল ভক্তরা গাইবেন লালনের গান।

এছাড়াও লালন মঞ্চে থাকবে সারারাত গানের আয়োজন। ১৭ই অক্টোবর’২২ রোজ সোমবার কুষ্টিয়ার কুমারখালীর ছেঁউরিয়া আখড়া বাড়িকে তিনদিন ব্যাপী লালন শাহের তিরোধান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক সাইদুল ইসলাম। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এবং লালন একাডেমীর আয়োজনে এই স্মরণ উৎসব চলবে তিন দিন।

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার ছেঁউরিয়ায় আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে তিনদিন ব্যাপী শুরু হতে যাচ্ছে আধ্মাতিক সাধক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহ-এর ১৩২ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে লালন স্মরণোৎসব-২০২২। আগামী ১৭, ১৮ ও ১৯ অক্টোবর, ২০২২ইং (১, ২ ও ৩ কার্তিক ১৪২৯খ্রী.) সোম, মঙ্গল ও বুধবার বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহ-এর ১৩২ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিতব্য লালন স্মরণোৎসব উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সাধু, ফকির, বাউল, ভক্ত, পাগল ও দর্শনার্থীরা আসতে শুরু করেছে। উৎসবের ৩দিন লালনের আঁখড়াবাড়ির ভিতরে ও আশপাশের অঞ্চল জুড়ে ছোট-ছোট দলে ভাগ হয়ে বাউল ভক্তরা গাইবেন লালনের গান। এছাড়াও লালন মঞ্চে থাকবে সারারাত গানের আয়োজন।

লালন একাডেমির সভাপতি ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক সাইদুর ইসলাম জানান, ফকির লালন শাহ’র ১৩২ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষে এবারে তিন দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠান মালার আয়োজন করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই প্রায় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। প্যান্ডেলের কাজ কিছু বাকি আছে সেটাও হয়ে যাবে। এবারে লালন মেলায় নিরাপত্তার জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। সেইসঙ্গে পুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ, আনসার সদস্য এবং লালন একাডেমির স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত থাকবে। প্রতিবছরের মতো এবারেও লালন ভক্তদের জন্য বিকেলে অদিবাস, সকালে বাল্যসেবা ও দুপুরে পূর্ণসেবা ব্যবস্থা রয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলা ১২৯৭ সালের পহেলা কার্তিক সাধক পুরুষ লালন সাঁই দেহত্যাগ করেন। এরপর থেকে লালনের অনুসারীরা প্রতিবছর ছেঁউড়িয়ার আঁখড়া বাড়িতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে এদিনটি পালন করে আসছেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসন ও লালন একাডেমির সহযোগিতায় এবারও আয়োজন করা হয়েছে ৩ দিনের এ আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!