জনদুর্ভোগে মানুষ ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বান ওবায়দুল কাদের

অনলাইন ডেস্ক।।

১৮৬

বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার্থী ও জনগণের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে পরিবহন ও মালিক শ্রমিকদের ডাকা পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আজ (৫ নভেম্বর) নিজ বাসভবনে ব্রিফিংকালে তিনি এ আহ্বান জানান।

কেরোসিন ও ডিজেলের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে পূর্বঘোষণা ছাড়াই আজ সকাল ৬টা থেকে রাজধানীসহ সারাদেশে ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করছে পরিবহন মালিক শ্রমিকরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষকে জনদুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চরম ভোগান্তি।

৭ নভেম্বর আগামী রোববার বিআরটিএ’র ভাড়া পুর্ননির্ধারন কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সেখানে সংশ্লিষ্ট স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বাস্তবভিত্তিক মূল্য সমন্বয়ের মাধ্যম জনগণের ওপর বাড়তি চাপ সহনীয় পর্যায়ে রাখার চেষ্টা করা হবে।

৩ নভেম্বর বুধবাররাতে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কেরোসিন ও ডিজেলের দাম লিটারে ১৫ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দেওয়া হয়। নতুন দাম ভোক্তা পর্যায়ে ৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা করা হয়। যা কার্যকর হয় ওইদিন রাত ১২টা থেকে।

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন বঙ্গবন্ধু সেতু ও মুক্তারপুর সেতুর টোল ভাড়া বাড়ানো প্রসঙ্গে, ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণ খরচ বাড়ার কারণে অনুমোদিত যানবাহনের শ্রেণিবিন্যাস এবং টোলহার বাড়ানো হয়েছে।

মন্ত্রী এ প্রসঙ্গে আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু সেতুতে সর্বশেষ ২০১১ সালে টোলহার বাড়ানো হয়েছিল। দীর্ঘ ১০ বছর পর এ সেতুর টোলহার বাড়ানো হয়েছে। অন্যদিকে ২০০৮ সালে মুক্তারপুর সেতু চালু হওয়ার পর এই প্রথম সেখানে টোলহার বাড়ানো হয়েছে। সেতুমন্ত্রী বাস্তবভিত্তিক ও যৌক্তিক হারে টোলের হার বাড়ানোর বিষয়টি মেনে নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান।

আয়েশা আক্তার/অননিউজ24

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!