টাইব্রেকারে জাপানকে হারিয়ে শেষ আটে ক্রোয়েশিয়া

অনলাইন ডেস্ক।।

৯০ মিনিটেও ফয়সালা হলো না। এবারের বিশ্বকাপে এই প্রথম কোনো ম্যাচ গড়ালো অতিরিক্ত সময়ে। এই ত্রিশ মিনিটেও হলো না ফয়সালা। শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে গড়ালো খেলা। যেখানে জাপানিদের ৩-১ ব্যবধানে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে গেল ক্রোয়েশিয়া।

প্রথম থেকেই গতিশীল ফুটবল খেলা শুরু করে জাপান। জুনিয়া ইতো, দাইচি কামাদাদের হাত ধরে আক্রমণ তুলে আনতে থাকে তারা। ছোট ছোট পাসে নিজেদের খেলা সাজায় জাপান। অন্য দিকে ক্রোয়েশিয়া চেষ্টা করছিল মাঝমাঠের দখল নেওয়ার। খেলার ৩ মিনিটের মাথাতে প্রথম সুযোগ পায় জাপান। তানিগুচির হেড অল্পের জন্য বাইরে যায়। ৯ মিনিটের মাথায় টোমিয়াসুর ভুল থেকে সুযোগ পায় ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু গোলরক্ষককে একা পেয়েও পেরিসিচ গোল করতে পারেননি। ১৩ মিনিটের মাথায় আবার জাপানের সুযোগ। ইতোর ক্রসে পা ছোঁয়াতে পারলেই গোল করতে পারতেন মায়েদা। পারেননি তিনি।

বলের দখল বেশি ছিল ক্রোয়েশিয়ার। কিন্তু জাপান অনেক বেশি সুযোগ তৈরি করছিল। জাপানের ফুটবলারদের গতির কাছে পেরে উঠছিলেন না মদ্রিচরা। দুই প্রান্ত ধরে একের পর এক ক্রস ভেসে আসছিল ক্রোয়েশিয়ার বক্সে। কিন্তু গোলের মুখ খোলেনি।

অবশেষে প্রথমার্ধের বিরতির ঠিক আগে গোল করে জাপানকে এগিয়ে দেন মায়েদা। দোয়ানের ক্রসে হেড করেন মায়া ইয়োশিদা। বল যায় মায়েদার কাছে। বাঁ পায়ের শটে গোল করতে ভুল করেননি জাপানি স্ট্রাইকার। ১-০ গোলে এগিয়ে বিরতিতে যায় জাপান।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে গোল শোধ করতে মরিয়া চেষ্টা চালায় ক্রোয়েশিয়া। আক্রমণে গতি অনেক বাড়ায় তারা। তার ফলও মেলে। ৫৫ মিনিটের মাথায় লভরেনের ক্রস থেকে হেডে গোল করে সমতা ফেরান ইভান পেরিসিচ।

এক গোল পেয়ে যাওয়ার পরে দ্বিতীয় গোলের জন্য ঝাঁপায় ক্রোয়েশিয়া। আরও বেশি সুযোগ তৈরি করতে থাকে তারা। কিন্তু দ্বিতীয় বার জাপানের রক্ষণ ভাঙা যাচ্ছিল না। অন্য দিকে প্রতি আক্রমণ থেকে মাঝে মাঝেই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছিলেন দোয়ানরা। কিন্তু দু’দল অনেক চেষ্টা করেও গোল করতে পারেনি। ফলে অতিরিক্ত সময়ে গড়ায় খেলা।

যেখানে পাওয়া ত্রিশ মিনিটেও গোল করতে পারেনি কেউ। ফলে শেষমেশ টাইব্রেকারেই শেষ হয় ম্যাচের ভাগ্য। যেখানে প্রথম দুই কিকেই পিছিয়ে পড়ে জাপান। অন্যদিকে, ২-০ তে এগিয়ে যায় ক্রোয়েশিয়া। তৃতীয় কিকে অবশ্য গোল পায় জাপান, বিপরীতে মিস করে ক্রোয়েশিয়া।

তবে চতুর্থ কিকে জাপানের ফুটবলার আবারও মিস করলে ৩-১ ব্যবধানেই শেষ হয় আট কিকের টাইব্রেকার। জাপানিদের কাঁদিয়ে শেষ আটে চলে যায় লুকা মড্রিচের দল।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!