ডিসির সাথে আইনশৃঙ্খলা মিটিং শেষ করে নৌকার প্রার্থীর তাণ্ডব, আহত-৫

নিজস্ব প্রতিবেদক।।

বরুড়ার ১৩নং আদ্রা ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী রাকিবুল হাসান লিমনের নির্বাচনী উঠান বৈঠকে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়ে পণ্ড করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে ইউনিয়নের পেরপেটি হাইস্কুল মাঠে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন মজুমদারসহ অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কামরুল ইসলাম বরুড়ার ৯টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেম্বার, মহিলা মেম্বার পদ প্রত্যাশীদের নিয়ে আইনশৃঙ্খলার উপর মিটিং করেন। মিটিংয়ে জেলা প্রশাসক আইনশৃঙ্খলার উপর গুরত্বপূর্ণ আলোচনা আলোকপাত করেন। কিন্তু, এই মিটিং শেষ হওয়ার খানিক বাদেই আদ্রা ইউনিয়নের নৌকার প্রার্থী বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর উঠান বৈঠকে তাণ্ডব চালিয়েছে।

পূর্ব নির্ধারিত ঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী রাকিবুল হাসান লিমনের উঠান বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে উঠান বৈঠকের ঠিক আগ মুহূর্তে ২০-২৫টি মোটরসাইকেলে করে আসা বহিরাগত ক্যাডার বাহিনী দিয়ে উঠান বৈঠকের স্টেজ, চেয়ার, টেবিলসহ, সাইনবোর্ড, সামিয়ানা দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র দিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর চালাতে থাকে।

এসময় তাদের বাধা দিতে গেলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন মজুমদারসহ অন্তত ৫জন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। খবর শুনে সহকারি পুলিশ সুপার জাহিদ হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা।

বরুড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম জানান, ঘটনার কথা মৌখিকভাবে শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!