ঢাকা নিউ মার্কেটের সংঘর্ষে আহত ডেলিভারি ম্যান নাহিদ এর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক।।

রাজধানীর নিউ মার্কেটে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত মো. নাহিদ নামের এক ডেলিভারি ম্যান মারা গেছেন। আহত ডেলিভারি ম্যান নাহিদ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত ৯টা ৪০ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার মধ্যরাতে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ হয়। সে রেশে রাতভর উত্তেজনা ছিল রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায়।মঙ্গলবার সকালে আবারও পথে নেমে আসেন শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা। দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি অবস্থানে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে পুরো এলাকা। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রড ও লাঠিসোটা হাতে দলবেঁধে নিউ মার্কেট এলাকায় আসতে থাকেন ঢাকা কলেজের ছাত্ররা। শুরু হয় ভাঙচুর। হাতে লাঠিসোটা নিয়ে বেরিয়ে আসেন ব্যবসায়ীরাও। বেধে যায় তুমুল সংঘর্ষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। গতকাল থেকে মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় ঢাকা কলেজেরই অন্তত ৩০ শিক্ষার্থী আহত হন বলে নিশ্চিত করেন ঢাকা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ড. মো. আব্দুল কুদ্দুস সিকদার। তবে শিক্ষার্থীদের দাবি, তাদের শতাধিক সহপাঠী আহত হয়েছেন।

অপরপক্ষে ব্যবসায়ী এবং পথচারীদের অনেকে আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। এই সংঘর্ষকালেই আহত হয়েছিলেন ওই ডেলিভারি ম্যান।সংঘর্ষে শুধু ঢাকা কলেজের অর্ধশতাধিক ছাত্র আহত হয়েছে বলে দাবি করেছেন শিক্ষার্থীরা। ব্যবসায়ীরাও বলছেন, তাদের পক্ষেরও অর্ধশতাধিক ব্যবসায়ী-কর্মচারী আহত হয়। দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক জানান, সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে ৪১ জন জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের মধ্যে তিনজন ভর্তি রয়েছেন। তাদের অবস্থা গুরুতর। দুই জনকে ওয়ান স্টপ ইমারজেন্সি সেন্টারে (ওসেক) চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘গুরুতর আহত দুজনের একজনও ছাত্র নয়। তাদের যারা হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন তারা বলেছেন, নিউমার্কেট এলাকায় সংঘর্ষে তারা আহত হয়েছেন। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে অধিকাংশেরই মাথায় আঘাত রয়েছে। ঢাকা মেডিক্যালে এখন তিনজনকে ভর্তি রাখা হয়েছে।’

আহতদের মধ্যে রাতে নাহিদ নামে একজনের মৃত্যু হয়। এখন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৭ বছর বয়সী মোহাম্মদ ইয়াসিন ও ৩৪ বছরের মোরসালিন।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!