তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে অটোরিকশা চালককে হত্যা

রুবেল মজুমদার।

কুমিল্লা নগরীর থিরাপুকুর পাড়ের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র দুই অটোরিকশাচালকের হাতাহাতিতে জনি নামের এক অটোরিকশা চালককে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) সকাল ৮ টায় নগরীর রাজগঞ্জ মোড়ে সিএনজিচালক হালিম ও অটোরিকশাচালক জনির মধ্যে যাত্রী উঠা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে বুকে ব্যাথা নিয়ে নিহত জনি কুমিল্লা টাওয়ার হসপিটালে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু ঘোষণা করেন।

নিহত মোঃজনি মিয়া( ৩০) নগরীর মুরাদপুর এলাকায় মৃত জামাল মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ জানায়, সকালে নগরীর রাজগঞ্জ মোড়ে যাত্রী উঠা নিয়া সিএনজি চালক আবদুল হালিম ও অটোরিকশাচালক জনি মধ্যে হাতাহাতি হয়। তারপর জনি বাসায় গিয়ে বুক ব্যাথার কথা বললে পরিবারের সদস্যরা তাকে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। এই কথা শুনে অন্য অটোরিকশা চালকেরা সিএনজিটি ভাংচুর করে এবং এসময় অভিযুক্ত হালিম পালিয়ে যায়। যদিও নিহতের পরিবার দাবি করছে নিহত জনি স্ট্রোক করে মারা গিয়েছে তবে পুলিশ গিয়ে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানার জন্য নিহতের লাশের ময়নাতদন্ত করার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

কুমিল্লা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কামরান হোসেন বলেন,ঘটনাটি শুনে আমরা ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করি। বিস্তারিত তদন্তের পরে ঘটনার রহস্য বের করা হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!