তেলের মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে হিলিতে ধর্মঘট, বন্দরে পণ্যপরিবহন ব্যাহত

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

১৩৮

জ্বালানি তেলের মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারাদেশের ন্যায় দিনাজপুরের হিলিতে দ্বিতীয় দিনের মতো পরিবহন ধর্মঘট চলছে।ধর্মঘটের কারনে হিলি থেকে সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে ধর্মঘটের কোন প্রভাব পড়েনি হিলি স্থল বন্দরের আমদানি রফতানি বানিজ্যে তবে পণ্য পরিবহন কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে।

শনিবার সকাল থেকেই হিলি স্থলবন্দর দিয়ে দুদেশের মাঝে পণ্য আমদানি রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক গতিতে শুরু হয়েছে। অপরদিকে বন্দর থেকে পণ্য নেওয়ার জন্য দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বাংলা ট্রাকগুলো এসে বন্দরে প্রবেশ করছে। তবে বাংলা ট্রাকের পরিমান অন্যান্য দিনের তুলনায় কম। বন্দর থেকে স্থানীয় আমদানিকারকদের পণ্য পরিবহন স্বাভাবিক রয়েছে। একইসাথে বিশেষ ব্যবস্থায় দেশের অভ্যন্তরে পেয়াজসহ অন্যান্য পণ্য পরিবহন চলছে তবে অন্যান্য দিনের মতো স্বাভাবিক পণ্য পরিবহন বিঘ্নিত হচ্ছে।এদিকে দ্বিতীয় দিনের মতো হিলি থেকে রাজধানী ঢাকাসহ সকল রুটে যাত্রিবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে করে চরম বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। বিকল্প উপায়ে বাড়তি ভাড়ার মাধ্যমে সিএনজি ইজিবাইক ভ্যান রিক্সায় গন্তব্যে পৌছানের চেষ্টা করছেন তারা।

ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে আসা লিংকন আহমেদ বলেন, আমি একটি টেক্সটাইল ফার্মে চাকুরি করি, তিনদিনের ছুটি নিয়ে বাড়িতে এসেছিলাম। আগামীকাল আমার জয়েন্ট করার শেষ তারিখ কিন্তু এখন বাস বন্ধ কিভাবে যাবো সেই নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়ে গেছি। ট্রেনের টিকিটের জন্য চেষ্টা করেছি দাড়িয়ে যাবো তবুও টিকিট পাচ্ছিনা খুব বিপদের মধ্যে পড়ে গেছি। তারা তাদের ভাড়া বাড়াবে সেটি আলোচনা করেও করতে পারে কিন্তু সাধারন মানুষকে জিম্মি করে এরকম করার কোন মানে হয়না।

বাসচালক ইসমাইল হোসেন বলেন, ১লিটার তেলে ১৫টাকা বৃদ্ধি করেছে সরকার এই বাড়তি দামে তেল ক্রয় করে বাস চালিয়ে তেলের টাকায় উঠছেনা। যার কারনে তেলের মুল্য বৃদ্ধির কারনে বাস মালিকরা বাস চালানো বন্ধ রেখেছেন। এদিকে গাড়ি বন্ধ থাকায় আমাদের খুব সমস্যা হচ্ছে, গাড়ি চললে আমরা টাকা পায় না চললে আমরা কোন টাকা পায়না।

হিলি স্থলবন্দরের ট্রাফিক পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা মুকুল বলেন, বন্দরে সকাল থেকেই ভারত থেকে পণ্যবাহী ট্রাক প্রবেশ করছে। যথারীতি পণ্য নেওয়ার জন্য বন্দরে বাংলা ট্রাক প্রবেশ করছে তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় সেই পরিমান কিছুটা কম রয়েছে তবে দিন শেষে সেটির পরিমান পরিষ্কার বুঝা যাবে। ভেতরে পণ্য লোডআনলোড সহ অন্যান্য সকল কার্যক্রম চালু রয়েছে, যথারীতি বন্দর থেকে পণ্য লোড করে বাংলা ট্রাক বন্দর ছেড়ে চলে যাচ্ছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!