ধর্মঘটের আগের দিনই সিলেটে বন্ধ বাস

অনলাইন ডেস্ক ।

৫০

বাসমালিকরা বলছেন, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে আজ থেকে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হওয়ায় ঢাকাসহ দূরপাল্লার বাসগুলো সিলেট ছেড়ে যেতে পারছে না। দূরের বাস সিলেটে আসতেও পারছে না, তবে জেলার ভেতরে বাস চলাচল করছে।

বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের দিন শনিবার সিলেটে ধর্মঘট ডেকেছে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো, তবে শুক্রবার থেকেই প্রায় বন্ধ হয়ে পড়েছে বাস চলাচল। বিশেষত দূরপাল্লার বাস সিলেট থেকে ছেড়ে যাচ্ছে না। অঘোষিত এই ‘ধর্মঘটে’ বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা।

বাসমালিকরা বলছেন, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে আজ থেকে পরিবহন ধর্মঘট শুরু হওয়ায় ঢাকাসহ দূরপাল্লার বাসগুলো সিলেট ছেড়ে যেতে পারছে না। দূরের বাস সিলেটে আসতেও পারছে না, তবে জেলার ভেতরে বাস চলাচল করছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিমানবন্দর থেকে মালয়েশিয়া যাবেন প্রবাসীশ্রমিক অশোক। এ জন্য সকালে সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে আসেন তিনি। বাসে করে ঢাকা গিয়ে সন্ধ্যায় উঠবেন বিমানে। বাস টার্মিনালে এসে দেখেন, ঢাকামুখী কোনো বাস ছেড়ে যাচ্ছে না।

অশোক বলেন, ‘মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য আমি তিন দিন আগে বিমানের টিকিট কিনেছি। শনিবার পরিবহন ধর্মঘট থাকায় শুক্রবারের টিকিট কিনেছি।

‘এ কারণে আগের রাতেও ঢাকায় যাইনি, কিন্তু আজকে সকালে বাস টার্মিনালে এসে দেখি কোনো বাস ছাড়ছে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিকেলের মধ্যে ঢাকা পৌঁছাতে না পারলে আমার বিমানের টিকিটের পুরো টাকা গচ্ছা যাবে।’

সকালে সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা যায়, টার্মিনাল থেকে আন্তজেলা বাস ছাড়া দূরপাল্লার কোনো বাস ছাড়ছে না। আন্তজেলা বাসও সংখ্যায় খুব কম। দূরপাল্লার বাসের কাউন্টারগুলোও বন্ধ।

এনা বাসের বন্ধ কাউন্টারের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক কর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘সোমবারের আগে সিলেট থেকে আর বাস ছেড়ে যাবে না।’

হানিফ পরিবহনের বন্ধ কাউন্টারের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রী শরিফ হাসান বলেন, ‘আমি ঢাকায় চাকরি করি। শনিবার ধর্মঘট জানি। তাই আজকে ঢাকাই যাওয়ার জন্য এসেছিলাম, কিন্তু এখানে এসে কোনো বাস পাচ্ছি না।’

তিনি বলেন, ‘কয়েকটি মাইক্রোবাস যাত্রী নিয়ে ঢাকা যাচ্ছে, তবে তারা অনেক বেশি ভাড়া চাচ্ছে।’

ধর্মঘটের আগেই বাস চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়া নিয়ে সিলেট জেলা বাস, মিনিবাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল কবির পলাশ বলেন, ‘আমাদের ধর্মঘট শনিবার, কিন্তু মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জে আজকে থেকে ধর্মঘট শুরু হয়েছে।

‘ঢাকাসহ অন্যান্য জেলায় যেতে হলে এই দুই জেলা পাড়ি দিয়ে যেতে হয়, কিন্তু দুই জায়গায়ই ধর্মঘট থাকায় দূরপাল্লার কোনো বাস আসা-যাওয়া করতে পারছে না।’

পলাশ আরও বলেন, আন্তজেলা বাস চলাচল করছে।

পাঁচ দফা দাবিতে শনিবার সিলেটে ভোর ৬টা থেকে ২৪ ঘণ্টার বাস ধর্মঘট ডাকে বাস মালিক সমিতি। ভিন্ন চারটি দাবিতে শনিবার অন্য পরিবহনগুলোরও ধর্মঘট ডেকেছে সিলেট বিভাগীয় শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সমাবেশ আয়োজনে বাধাবিপত্তি সৃষ্টি করতেই সরকার কৌশলে পরিবহনে ধর্মঘট ডাকিয়েছে। শনিবার সিলেট সরকারি আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!