নারী ফুটবলারকে ধর্ষণচেষ্টার মামলায় ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।

৮১

এক নারী ফুটবলারকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে অভিযান চালিয়ে ছাত্রলীগের সাবেক এক নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে ময়মনসিংহের নান্দাইল মডেল থানা-পুলিশের একটি দল। গাজীপুর জেলার গাছা থানার ছয়দানা এলাকার একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ওয়াহিদুল আলম ফকির ওরফে ফয়সাল নান্দাইল ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। উপজেলা ছাত্রলীগে বর্তমানে কমিটি নেই। তবে ওয়াহিদুল এখনো অনেক কিছু নিয়ন্ত্রণ করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই নারী ফুটবলার বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টে নান্দাইল উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় নিয়মিত অংশ নিয়ে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। নির্যাতিত হওয়ার পর থেকে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন।

পারিবারিক স‚ত্রে জানা গেছে, ওই নারী বেশ কয়েকবার আত্মহত্যারও চেষ্টা চালান। তিনি কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে তাঁর অভিভাবককে সঙ্গে নিয়ে গত সোমবার থানায় এসে অভিযোগ জমা দেন। পুলিশ তাঁর অভিযোগটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হিসেবে গ্রহণ করে। তবে আসামিকে গ্রেপ্তারের সুবিধার্থে বিষয়টি গোপন রাখে পুলিশ।

মামলার বিবরণে বাদী উল্লেখ করেছে, ছাত্রলীগের নেতা ওয়াহিদুল ২২ এপ্রিল ওই নারী ফুটবলারকে মুঠোফোনে কল করে একটি উপবৃত্তির ফরমে স্বাক্ষর দিয়ে যেতে বলেন। ওই নারী ওয়াহিদুলের কথা বিশ্বাস করে তাঁর নিজ কলেজে যান। সেখানে যাওয়ার পর তাঁকে ওয়াহিদুল একটি পুরোনো ভবনের পেছন দিকের একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যান। সেখানে নিয়ে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। এ সময় তিনি চিৎকার করলে তাঁকে ছেড়ে দিয়ে চলে যান ওয়াহিদুল।

ওয়াহিদুলকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে নান্দাইল থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ বলেন, গাজীপুরের গাছা থানার এলাকা থেকে নান্দাইল থানা-পুলিশের একটি দল ওয়াহিদুলকে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁকে নান্দাইল থানায় নিয়ে আসা হচ্ছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!