নীলফামারীতে আটক ভূমি উপ-সহকারীকে উদ্ধার করল ডিমলা উপজেলা প্রশাসন

সুভাষ বিশ্বাস, নীলফামারী।

৩৭

অনিয়ম দুর্নীতি ও প্রকাশ্যে ঘুষ নেয়ার অভিযোগে নীলফামারী ডিমলার পশ্চিম ছাতনাইইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা নুর আলম কে অফিসে আটকে রেখে তার বিচার দাবি করে এলাকাবাসী । পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন ভুক্তভোগীদের  বিচারের বিষয়ে আশ্বস্ত করে ভূমি অফিস সহকারি নুর আলম কে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে। ঘটনাটি ঘটেছে,২১ নভেম্বর (সোমবার) সন্ধ্যার পরে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার ছাতনাই ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ।
ইউনিয়নের কালীগঞ্জ মৌজার মনিরুজ্জামান বিটুল জানান ১ একর জমির ৪২ বছরের খাজনা বাবদ তার কাছে ৫৫ হাজার টাকা নিলেও সরকারি রশিদ প্রদান করেন ৭৩২ টাকা । কালিগঞ্জ মৌজার তছির উদ্দিন নামে আরেক ভুক্তভোগী জানান বিএস খতিয়ানের অন্তর্ভুক্ত ৯৭ শতাংশ জমির খাজনা বাবদ ৯২২ টাকার ভূমি উন্নয়ন কর গ্রহণের চেকের রশিদ প্রদান করে ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা অতিরিক্ত নিয়েছেন তহশিলদার নুর আলম । এছাড়াও সরকারি খাস জমি কবলিয়ত বন্দোবস্ত করে দেয়ার কথা বলে তিনি অনেকের নিকট মোটা অংকের টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছে একাধিক ভুক্তভোগী।
এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক এর নিকট বিচার চেয়ে ভূমি অফিসের কক্ষে আটকে রাখেন ভূমি উপ সহকারি নুর আলমকে ।
এ বিষয়ে ডিমলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ বেলায়েত হোসেন জানতে চাইলে বলেন, অভিযোগ অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।  তার বিরুদ্ধে কোন মামলা না থাকায় তাকে গ্রেফতার করা হয়নি ।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!