নীলফামারীতে চেয়ারম্যানের গোয়ালে চোরা গরু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল

সুভাষ বিশ্বাস, নীলফামারী।।

২১৩

শপথ নেওয়ার ২ দিন পার না হতেই চেয়ারম্যানের গোয়ালঘরে উদ্ধার হলো চোরাই গরু, এ ঘটনায় গ্রেপ্তার হয়েছে ৩ জন। নীলফামারীর সৈয়দপুরে কাশিরাম বেলপুকুরে ইউনিয়নে ঘটনাটি ঘটেছে। এ বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এ ভাইরাল হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ইউপি চেয়ারম্যান লাঞ্চু হাসান চৌধুরীর গোয়ালঘর থেকে চুরি যাওয়া একটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি জাকের পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়ে ভোটে জয়ী হন। গত বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে তার বাড়ির গোয়ালঘর থেকে গরুটি উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে সৈয়দপুর থানা পুলিশ।গরু চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের সোনাখুলী মুন্সিপাড়া নুরুল ইসলাম (৪০), সোনাখুলী বড়বাড়ি এলাকার আজানুর ইসলাম (৩৫) এবং গরু চুরির মামলার বাদী একই ইউনিয়নের ডাঙ্গা পাড়া পশ্চিম বেলপুকুরের ফেরদৌস (৩২)।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মোর্শেদার বেগমের গোয়ালঘর থেকে শাহিওয়াল জাতের একটি বকনা গরু হারিয়ে যায়। গরুটির আনুমানিক মূল্য ৯০ হাজার টাকা। এ ঘটনায় মোর্শেদা বেগম সৈয়দপুর থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপসহকারী পরিদর্শক ইন্দ্রমোহন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেন। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চেয়ারম্যানের বাড়ি থেকে গরুটি উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান লাঞ্চু হাসান চৌধুরী দাবি করেন, তিনি গরুটি ৪০ হাজার টাকায় কিনেছেন। তবে তার ভুল হয়েছে কেনার সময় রসিদ না নেওয়া।
সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত আরটিভি নিউজকে বলেন, চুরি যাওয়া গরু চেয়ারম্যানের বাড়ি থেকে উদ্ধারের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!