নীলফামারীতে পুলিশি বাধায় পন্ড হলো বিএনপি’র গণমিছিল কর্মসূচি অবরুদ্ধ বিএন পি সভাপতি

সুভাষ বিশ্বাস, নীলফামারী

পুলিশি বাধার মুখে পন্ড হলো নীলফামারী জেলা বিএনপি’র গণমিছিল কর্মসূচি। এ সময় জেলা বিএনপি’র সভাপতি আ খ ম আলমগীর সরকারকে বিএনপি অফিসে ২ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ করেছে নেতা কর্মীরা।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচি সফল করতে সকাল ৯’টার পর থেকে শহরের বিভিন্ন পাড়া মহল্লা গাছবাড়ি, বড়বাজার, পিটিআই মোড়,পাঁচমাথা,কলোনী থেকে খন্ড খন্ড মিছিল গুল শহরের পৌর মার্কেট বিএনপি কার্যালয়ের দিকে আসছিল সে সময় ডাল পট্টি থেকে বাজারে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহুরুল আলম এর নেতৃত্বে আসা মিছিলটি।
জেলা কৃষকদলের আহবায়ক মগনি মাসুদুল আলম দুলাল এর নেতৃত্বে একটি মিছিল পাঁচ মাথা থেকে চৌরঙ্গী মোড় আসলে, পুলিশ ধাওয়া করে ছত্রভঙ্গ করে দেয় নেতা-কর্মীদের।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মোরশেদ আযম ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহম্মেদ জানান মিছিল নিয়ে বিএনপি অফিসে যাই তখন বাটার মোড়ে পুলিশ আমাদের উপর হামলা চালিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

নীলফামারী জেলা বিএনপির সভাপতি আখম আলমঙ্গীর সরকার অভিযোগ করে জানান, আমরা প্রশাসনের সাথে কথা বলেছি। তারাও আমাদের কার্যক্রমে অনুমতি দিয়েছে। সকাল ৯টা থেকে বিএনপি ও এর সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিএনপির পৌর মার্কেস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে জড়ো হতে থাকে। সেসময় শহরের বিভিন্ন মোড়ে ও পাড়া মহল্লায় পুলিশ অবস্থান নিয়ে দুপুর ১২টা পর্যন্ত শহরে প্রবেশ করতে দেয়নি। বিএনপি অফিস ঘিরে আমাকে ২ ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখে।

নীলফামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রউফ জানিয়েছেন প্রতিদিনের মত আইন-শৃংখলা রক্ষার স্বার্থে আমরা শহরে দায়িত্ব পালন করছি।

পুলিশের বাধার মুখেই শহরেই সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহুরুল আলম, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি রায়েদুল ইসলাম দোলন, পৌর বিএনপির সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাহবুব।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!