নড়াইলের চরমল্লিকপুর গ্রামে ফল ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

নড়াইল প্রতিনিধি।।

১৫৯

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার চরমল্লিকপুর গ্রামের পলাশ মাহমুদকে (৩২) নামে এক ফল ব্যবসায়ী কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই গ্রামের পশ্চিমপাড়ায় রমজানের মুদি ও চায়ের দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত পলাশের বাবার নাম খোকন শেখ। পিতার বাড়ি খুলনা জেলায় হলেও তিনি ছোটকাল থেকে নানা বাড়ি চরমল্লিকপুর গ্রামে বড় হয়েছেন। নানার নাম মবজেল শেখ । নিহত পলাশ লোহাগড়া বাজারের ফল ব্যবসায়ী ছিলেন।

জানাগেছে, পলাশ শেখ লোহাগড়া বাজারের ফলের ব্যবসা করতেন সে কারনে লোহাগড়া উপজেলা শহরে ভাড়া বাসায় স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করতেন। ২১দিন আগে তাদের একটি ফুটফুটে পুত্র সন্তান হয়েছে।

নিহত পলাশের মামা লিটু শেখ জানান, সোমবার রাতে পলাশকে হাস খাওয়ার দাওয়াত দিয়ে লোহাগড়া থেকে ডেকে আনা হয়। রাত ৯টার পর চরমল্লিকপুর গ্রামের রমজান ও ইমরানের বাড়িতে খাওয়া দাওয়া শেষে তাকে পাশেই রমজানের দোকানে এনে ঘাড় সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেপরোয়াভাবে কুপিয়ে চলে যায়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে নিয়ে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি দাবি করেন, এলাকার পুর্বশত্রæতা ও আধিপত্য নিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

লোহাগড়া থানার ওসি শেখ আবু হেনা মিলন জানান, পলাশ মাহমুদের শরীরে কোপের ধরণ দেখে মনে হচ্ছে তাকে হত্যা করতেই হামলা করা হয়েছে। পূর্বশত্রæতার কারনে এ হত্যাকান্ড বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। মৃতদেহের ময়নাতদন্ত মঙ্গলবার দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে সম্পন্ন হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে এখনও কেউ আটক হয়নি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!