নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে বিএনপির পকেট কমিটি ঘোষণার প্রতিবাদে মানববন্ধন

নড়াইল প্রতিনিধি।।

১১৮

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে বিএনপির পকেট কমিটি ঘোষণার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শালনগর ইউনিয়ন বিএনপির পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

শনিবার (১৯ ফেব্রæয়ারি) দুপুরে লোহাগড়া-লাহুড়িয়া সড়কের শালনগর ইউনিয়নের কাঠালতলা বাজার এলাকায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ও শালনগর ইউনিয়ন বিএনপির সদ্য বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সালেহা বেগম, লোহাগড়া পৌর মহিলা দলের সভাপতি পৌর কাউন্সিলর খালেদা বেগম, শালনগর ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বকুল খান, সাবেক যুগ্মসম্পাদক মেহেদী হাসান, ৯ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক পান্নু মোল্যা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয়য় কমিটির নির্দেশনা না মেনে লোহাগড়া উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জিএম নজরুল ইসলাম ও সদস্য সচিব কাজী সুলতানুজ্জামান সেলিম ঘরে বসে তাদের পছন্দমতো ১২টি ইউনিয়নের পকেট কমিটি ঘোষণা করেছেন। কমিটি গঠন করে ফেসবুকে ছেড়েছেন। এসব কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে দলের গঠনতন্ত্রের নিয়ম-নীতি মানা হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামীলীগ ও পুলিশের নির্যাতনের শিকার এবং ত্যাগী ও যোগ্য নেতাদের মূল্যায়ন করা হয়নি। এক্ষেত্রে জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম ও সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলামের মদদ রয়েছে। এ অবৈধ পকেট কমিটি আমরা মানি না।

বক্তারা আরো বলেন, ‘ আগামীতে আন্দোলন-সংগ্রামের ক্ষেত্রে এসব পকেট কমিটি কোন কাজে আসবে না। দলের সাংগঠনিক কর্মকান্ডে গতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে অবিলম্বে এ কমিটি বাতিল ত্যাগী ও যোগ্য নেতাদের অর্ন্তভূক্ত করা হোক।’

এ ব্যাপারে নড়াইল জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ইউনিয়ন কমিটি করার দায়িত্ব উপজেলা বিএনপির। তারা কোনো অনিয়ম করলে জেলাকে লিখিত ভাবে জানাতে হবে।’

উল্লেখ্য যে, এর আগে গত ১৫ ফেব্রæয়ারি ইতনা ইউনিয়ন বিএনপির উদ্যোগে ইতনা চৌরাস্তা এলাকায় ১২টি ইউনিয়নের কমিটি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!