পরিবহন ধর্মঘটে বাংলাবান্ধা বন্দরে গাড়ির সংকট, লোকসানের আশঙ্খা

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধি।।

১৩৮

গত তিন দিন ধরে দেশব্যাপী চলমান পরিবহণ ধর্মঘটে দেশের একমাত্র চতুর্দেশীয় স্থলবন্দর পঞ্চগড়ের বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে বাণিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনায় অনেকটাই প্রভাব পড়েছে বলে জানিয়েছে বন্দর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। এতে করে ব্যহত হচ্ছে এই স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য কার্যক্রমে। একই সাথে লোকসানের আশঙ্খা করছেন ব্যবসায়ীরা।

গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) সকাল থেকে পরিবহন ধর্মঘট শুরুর পর রোববার (৭ নভেম্বর) টানা তিন দিন বন্দরে দেশীয় গাড়ি ও রপ্তানিকারক গাড়ি প্রবেশ না করায় কার্যক্রমে স্থবিরতা চলে আসে।

আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, বন্দরে আমদানি স্বাভিব থাকলেও রপ্তানি হচ্ছে না। অন্যদিকে দেশীয় গাড়ি বন্দর এলাকায় পৌছাতে না পারায় লোকসানের মুখে পড়েছে তারা। আবার সারাদেশে পরিবহন ধর্মঘটে রপ্তানিকারক গাড়িও বন্দরে প্রবেশ না করায় সরবরাহ বন্ধের মুখে পড়েছে। এদিকে বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, এখন পর্যন্ত বন্দরের অবস্থা স্বাভাবিক থাকলেও শুধু দেশীয় গাড়ি বন্দর এলাকায় আসছে না।

এ বিষয়ে কথা হয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি আব্দুল লতিফ তারিনের সাথে। তিনি বলেন, আমাদের এই বন্দরে ভারত, নেপাল ও ভূটানের যে সব মালামাল আসতেছে সেগুলো দেশীয় গাড়ি প্রবেশ না করায় মালামালগুলো লোড করা যাচ্ছে না। একই সাথে ট্রাক না থাকায় মালামাল দেশের কোথাও যাচ্ছে না। এর ফলে বন্দরে চাপ বেড়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে রপ্তানিকারক মালামাল বন্দরে না আসায় সরকার লক্ষ লক্ষ টাকার রাজস্বও হারাচ্ছে। দেশীয় গাড়ি বন্দর এলাকায় প্রবেশ না করায় আমদানি করা কিছু প্রয়োজনীয় মালামাল বন্দরেই আনলোড করা হচ্ছে। বর্ধীত জাইগার মধ্যে বর্তমানে ভারত ও ভূটানের প্রচুর গাড়ি রয়েছে যার কারণে জানজটের কারণে মালামাল লোড আনলোড করতে না পারায় ব্যবসায়ীরা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। গত তিন দিন ধরে ধর্মঘটের কারণে কোন আমদানি করা গাড়ি বন্দর থেকে ছেড়ে যাই নি! এদিকে আমদানিকরা পাথর বন্দরে আনলোড করা হলেও অন্যান্য মালামাল ভূসি, ভুট্টাসহ বিভিন্ন মালামাল বন্দরে রাখা যাচ্ছে না, গাড়ি আনলোড করা যাচ্ছে না। এতে করে বিভিন্ন ধরণের সমস্যার সম্মূখীন হতে হচ্ছে বন্দর সংশ্লিষ্টদের।

বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ বলেন, ধর্মঘটের কারণে বন্দরে বাংলা গাড়ি কম প্রবেশ করছে। যে সব মালামাল ছাড়করণের সেগুলোতে একটু সমস্যা হচ্ছে। তবে বর্তমানে পাথরের সাথে সংশ্লিষ্ট যে ব্যবসায়ীরা দেশের বিভিন্ন স্থানে পাথর পাঠান মূলত তারাই ধর্মঘটের কারণে সমস্যার সম্মুখীণ হচ্ছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!