প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ, নিজ জেলায় পরীক্ষা চান চাকুরী প্রার্থীরা

ফজলুল হক জয়।।

৮ এপ্রিল ২০২২ খ্রিস্টাব্দে শুরু হতে যাচ্ছে ৪৫০০০ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা। নিজ জেলায় এই পরিক্ষা আয়োজনের দাবি জানিয়েছেন চাকরি প্রার্থীরা। এই দাবিতে মানববন্ধন করেছেন দেশের বেশ কয়েকটি জেলার সাধারণ পরীক্ষার্থীরা।গোপালগঞ্জ জেলায় মানববন্ধন শেষে একটি র‌্যালি বের করে পরীক্ষার্থীরা পরে তা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

শনিবার বেলা ১১টায় গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে তারা গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। এ মানববন্ধনে নিকুঞ্জ বিশ্বাস, হাসিবুল শেখ, শিউলি কর্মকার, ও চন্দ্রা দাস-সহ অনেকে বক্তব্য রাখেন। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,বিগত কয়েক বছর ধরেই এই পরীক্ষা জেলা শহরে হয়ে আসছে এখন হঠাৎ করেই এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করায় আমরা চাকরিপ্রার্থীরা বিব্রত এবং হতভম্ব।

এই পরীক্ষার বেশিরভাগ প্রার্থীই নারী। রমজান মাসে পরীক্ষা হলে, তার ওপর আবার ঢাকায় পরীক্ষা নেওয়া হলে প্রার্থীদের বিশেষ করে নারীদের অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হবে। কারণ তারা সেহরি,ইফতার রোজা নিয়ে অনেক বিপাকে পড়তে হবে ।

তারা আরো বলেন আমরা এমনিতেই বেকার, অর্থনৈতিক সমস্যায় আছি। অনেক নারী পরীক্ষার্থী বিবাহিত, তাদের অনেকের ছোট সন্তান রয়েছে। অনেকে আবার সন্তান সম্ভবা হওয়া ঢাকায় গিয়ে পরীক্ষা দেওয়া খুবই কষ্টকর। আমাদের মত বেকারদের পক্ষে ঢাকায় যাতায়াত খরচ, থাকা খাওয়া খরচ বহন করা অসম্ভব। নিজ জেলায় পরীক্ষা হলে আমরা সবাই তাতে অংশগ্রহণ করতে পারবো। আমরা সরকারের কাছে দাবি করছি যেন নিজ জেলায় পরীক্ষা দিতে পারি এবং সবাই অংশগ্রহণ করতে পারি।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!