বুড়িচংয়ে চাঁদাবাজ মনির হোসেন র‌্যাবের হাতে আটক

বুড়িচং প্রতিনিধি।।

২৭৫

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার খাড়াতাইয়া গাজিপুর এলাকার ছিনতাই, চাঁদাবাজী, মাদক ও চুরি সহ ১৪টিরও অধিক মামলার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও মাদক কারবারি কামরুল হাসান মনির ওরফে গুটি মনির (৩৩) কে আটক করেছে র‌্যাব ১১ সিপিসি ২। মঙ্গলবার ভোররাতে খাড়াতাইয়া গাজিপুর এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয় এসময় তার কাছ থেকে একটি সুইচ গিয়ার চাকু ও প্রাবাসী ব্যবসায়ীর কাছ থেকে আদায়কৃত চাঁদার টাকা উদ্ধার করা হয়।

ভুক্তোভোগীর অভিযোগ ও কুমিল্লা র‌্যাব ১১ সিপিসি ২ এর কমান্ডার মেজর সাকিব হোসেন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়,কুমিল্লার বুড়িচং থানার খাড়াতাইয়া গাজীপুর গ্রামের হাজী আব্দুল বারেক এর ছেলে মোঃ আব্দুল মান্নান (৩৮) বিগত ২০০৭ সালে সৌদি আরবে পাড়ি জমায়। তিনি গত ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে দেশে আসেন। তিনি দীর্ঘদিন সৌদি আরবে প্রবাস জীবন পার করে তিনি অর্থনৈতিক স্বচ্ছলতা লাভ করেন। তিনি তার বাড়ির নিকটবর্তী নিজ জমিতে খাড়াতাইয়া বাজারে একটি মার্কেট নির্মাণ করে সেখানে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন।

সৌদি আরব থেকে দেশে আসার পর থেকেই কুখ্যাত চাঁদাবাজ খাড়াতাইয়া গাজীপুর গ্রামের মৃত রাজ্জাক সরদারের ছেলে মনির হোসেন প্রবাস ফেরত ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুল মান্নান (৩৮) এর নিকট থেকে বিভিন্ন অংকের দাবী করে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় চাঁদাবাজ মনির হোসেন (৩৩) গত বছরের ডিসেম্বর থেকে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুল মান্নান (৩৮) থেকে ভয়-ভীতি ও প্রাণনাশের ভয় দেখিয়ে মোট ১,১০,০০০/- (এক লক্ষ দশ হাজার) টাকা চাঁদা আদায় করে। চাঁদাবাজ মনির হোসেন পরবর্তীতে আরো ৫০,০০০/- (পঞ্চাশ হাজার) টাকা চাঁদা দাবী করলে ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুল মান্নান তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। ফলে গত ১৫ সেপ্টেম্বর আনুমানিক দুপুরে চাঁদাবাজ গুটি মনিরের ভাই আব্দুল আলিম ওরফে বোমা আলিম (৩৮) আগানগর, বুড়িচং পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন “আল মদিনা রিয়া এন্টারপ্রাইজ” নামক দোকানে ডেকে নিয়ে উক্ত ব্যবসায়ীকে কিল, ঘুষি, লাথি মেরে চেয়ার থেকে ফেলে দেয় এবং তাকে চাকু দেখিয়ে হত্যার হুমকি দেয়।

ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুল মান্নান (৩৮) বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে সামাজিক ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করেন। স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করার বিষয়টি টের পেয়ে চাঁদাবাজ মনির হোসেন উক্ত ব্যবসায়ীর দোকানে গিয়ে তার নিকট আরো ১০,০০,০০০/- (দশ লক্ষ) টাকা চাাঁদা দাবী করে এবং উক্ত টাকা না দিলে সে ব্যবসা করতে পারবে না বলে হুমকি প্রদর্শন করে। এসময়ে উক্ত ব্যবসায়ী তাকে টাকা না দেওয়ায় সে চাকু দিয়ে হত্যার ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক ১০,০০০/- (দশ হাজার) টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে প্রতিনিয়ত টাকা দেওয়ার জন্য উক্ত ব্যবসায়ীকে চাপ প্রয়োগ ও হুমকি ধমকি প্রদর্শন করতে থাকে। চাঁদাবাজ সন্ত্রাসী হামলার ভয়ে প্রবাস ফেরত ব্যবসায়ী মান্নান নিজ বাড়ি ও এলাকা ছেড়ে দীর্ঘদিন শশুর বাড়িতে অবস্থান করে।

পরে গত ৪ অক্টোবর বিষয়টি কুমিল্লা র‍্যাব অফিসে অবহিত করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে র‍্যাব-১১, সিপিসি-২ এর একটি আভিযানিক দল ৫ অক্টোবর গভীর রাতে জেলার বুড়িচং থানার খাড়াতাইয়া গাজীপুর এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে কুখ্যাত চাঁদাবাজ মনির হোসেন কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। এসময়ে তার নিকট থেকে চাঁদাবাজীর নগদ পাঁচ হাজার তিনশত পঞ্চাশ টাকা ও ১ টি সুইচ গিয়ার চাকু উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। র‌্যাব জানায় এ বিষয়ে গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে বুড়িচং থানায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন। দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় জঙ্গি, সন্ত্রাসী, মাদক কারবারি ও চাঁদাবাজদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনতে র‍্যাবের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মনিরের গ্রেফতারে এলাকাবাসী সহ প্রবাস ফেরত স্থানীয় ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান অত্যন্ত খুশি হয়েছে জানিয়ে বলেন, মাদক কারবারি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ এই গুটি মনির ও তার ভাইয়েদের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। নানা ভাবে এলাকার নিরীহ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের ওপর নির্যাতন ও চাঁদাবাজি চালিয়ে আসছিলো তারা। অপর আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের প্রত্যাশা করে র‌্যাব ১১কে ধন্যবাদ জানান তিনি।

সাইফুল ইসলাম সুমন,অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!