ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিলে বিষ ঢেলে ১০ লাখ টাকার মাছ নিধন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

৫০

পূর্ব বিরোধরে জের ধরে বিলের খাটিতে বিষ ঢেলে অন্তত ১০ লাখ টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ উঠেছে । এই ঘটনায় বিষ দেওয়ার সময় একজন হাতে নাতে আটক করলে প্রতিপক্ষের হামলায় ৫জন গুরত্বর আহত হয়। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলার সদর উপজেলার সদর উপজেলার বরিশল গ্রামের শনিবার রাতে। এই ঘটনায় রবিবার ব্রাহ্মনবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বরিশল গ্রামে আবুল কালাম র্দীঘ দিন ধরে বিলের মধ্যে নিজস্ব খাটিতে মাছ চাষ করে আসছেন। পূর্ব বিরোধের জের ধরে শনিবার রাতে বিষ দিয়ে মাছ নিধন করেন তাদের প্রতিপক্ষ শরিফ মিয়া। এসময় স্থানীয়রা টের পেয়ে শরিফ মিয়া নামে একজনকে আটক করে। তাকে তাদের কাছ থেকে ছাড়িয়ে নিতে প্রতিপক্ষের ১০/১৫ জন মিলে অর্তকিত হামলা চালায়। এই সময় তাদের হামলায় কমপক্ষে পাচঁজন আহত হয়। আহতরা হলেন শরুফা বেগম, হাজী আবুল কালাম, রহমত উল্লা, শাহ আলম ভূইয়া, জাহিদ চৌধুরি, হনুফাও লোকমান। খবর পেয়ে আহতদের উদ্ধার করে পুলিশ। আহতরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। এই ঘটনায় বৃদ্ধা হনুফা বাদী ৬ জনকে নামীয় ও ১০/১৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পত্রে মামলার আসামিরা হলেন, মতিন ভূইঁয়া, নুরুল ইসলাম, জাফর মিয়া, উসমান মিয়া, শরিফ মিয়া ও কাশেম।

মামলার বাদী বৃদ্ধ হনুফা জানান, আসামিদের সাথে আমাদের পূর্ব বিরোধ রয়েছে। শনিবার রাতে আমাদের পুকুরে বিষ দিয়েছিল শরিফ মিয়া। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেলে শরিফকে আটক করা হলে তাদের লোকজন উল্ট আমাদের উপর হামলা চালায়। বিষ নিধনের ফলে কমপক্ষে ১০ লক্ষ টাকার মাছ মারা গেছে বলে জানান তিনি।

এই ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এই বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!