ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দুই ট্রলারের সংঘর্ষ, ১৯ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

৮০৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার লইসক্যা বিলে শতাধিক যাত্রী নিয়ে ট্রলারডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৯ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় বিলের বিজয়নগর এলাকায় বালুবাহী ট্রলারের সঙ্গে যাত্রীবাহী ট্রলারের সংঘর্ষের ফলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত এদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও অনেক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে। তাদেরকে উদ্ধার অভিযান চলছে। দুর্ঘটনাকবলিত ট্রলারটি এখনও পানির নিচে রয়েছে। বালুবাহী ট্রলারটি আটক করা হয়েছে।
১৯ জনের লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. আনিসুর রহমান জানান, দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার কাজে অংশগ্রহণ করে। কিশোরগঞ্জ থেকে একদল ডুবুরি ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক (ডিসি) হায়াত-উদ-দৌলা খান জানান, উদ্ধার অভিযান উদ্ধার অভিযান অব্যাহত আছে। কিশোরগঞ্জ থেকে ডুবুরি দল ঘটনাস্থলের উদ্দেশে আসছে। এছাড়া ঘটনা অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রুহুল আমিনকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে আগামী ১০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, যারা নিহত হয়েছেন তাদের পরিবারের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা দাফনের জন্য দেওয়া হবে। এছাড়া ঘটনা অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রুহুল আমিনকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে আগামী ১০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
দুর্ঘটনার পর সাঁতরে ওপরে ওঠা জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত যাত্রী রফিক মিয়া জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আসার পথে বালুবাহী ট্রলারের ধাক্কায় তাদের ট্রলার (ইঞ্জিনচালিত নৌকা) ডুবে যায়। তার স্ত্রী ও মেয়েকে খুঁজে পাচ্ছেন না।মুরাদ মিয়া জানান, তিনি বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনায় পড়েন। কোনোরকমে সাঁতরে তারা তীরে ওঠেন। অনেকেই নিখোঁজ রয়েছেন।
আর/জে/অননিউজটুয়েন্টিফোর

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!