ভাঙ্গায় ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের নিয়ে আচরণ বিধিমালা ও আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

ভাঙ্গা(ফরিদপুর) প্রতিনিধি।।

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আসন্ন ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীদের নিয়ে আচরণ বিধিমালা ও আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ভাঙ্গা সরকারী কে.এম কলেজ মাঠে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ মতবিনিময় সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে শিক্ষা কর্মকর্তা মুন্সী রুহুল আসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ফরিদপুর জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ফরিদপুর পুলিশ সুপার মোঃ আলিমুজ্জামান (বিপিএম সেবা),জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। মতবিনিময় সভায় বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান,সাধারন সদস্য ও নারী প্রার্থীগন দাবি তোলেন কয়েক স্থানে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। তারা আইনশৃংখলা বাহিনী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরে আনেন। তাদের বক্তব্যের জবাবে আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দিতে একমত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গায় এবার ১২টি ইউনিয়নে শান্তিপুর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য যা কিছু দরকার সবই করা হবে।

এজন্য পর্যাপ্ত পুলিশ ,আনসার,পুলিশ সহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা মোতায়েন থাকবে। কেউ অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।আশা করি সকলের সার্বিক সহযোগিতায় একটি শান্তিপূর্ণ, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারবো।

সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে প্রার্থীদের সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন। কেউ নির্বাচনী আচরণ উপলক্ষ্যে গুজব ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে পুলিশ সুপার মোঃ আলিমুজ্জামান তার বক্তব্যে বলেন, আসন্ন ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে পুলিশ সহ একাধিক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে।

এক্ষেত্রে আমার নীতি হবে জিরো টলারেন্স। নির্বাচনের জন্য কঠোর অবস্থান নিবে পুলিশ। ইতিমধ্যে বাহিনীর একাধিক টিম নির্বাচন মাঠে কাজ করছে। যদি কেউ নির্বাচনে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটায় তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান নির্বাচন সংক্রান্ত দিকনির্দেশনামুলক বক্তব্য দেন। সভায় ভাঙ্গা থানায় নবাগত অফিসার ইনচার্জ মোঃ সেলিম রেজা আইনশৃংখলা রক্ষায় তার নেওয়া পদক্ষেপ সম্পর্কে আলোকপাত করেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মঞ্জুরুল আলম , মৎস্য কর্মকর্তা দেবলা চক্রবর্তী সহ বিভিন্ন কর্মকর্তা,সাংবাদিক,প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীগন। প্রার্থীদের মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী মনসুর আহম্মেদ মুন্সী,ফরিদ খান,চুন্নু চৌধুরী, ম.ম. ছিদ্দিক মিয়া,পলাশ মিয়া,সাংবাদিক শাহাদাত হোসেন,মুন্সী মনিরুজ্জামান সহ বেশ কয়েকজন বক্তব্য দেন।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!