মুরাদনগরে প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে রেবেকা-জাকির পরিষদ পূর্ন প্যানেলে জয়ী

মো. সাজ্জাদ হোসেন, মুরাদনগর।।

৪৯

কুমিল্লার মুরাদনগরে দীর্ঘ ২৯ বছর পর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির নির্বাচন উৎসবমূখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উপজেলা পরিষদের কবি নজরুল মিলনায়তন এবং সেন্ট্রাল স্কুলে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল থেকেই ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। নির্বাচনে সব ক’টি পদে ৩নং ব্যালটের রেবেকা সুলতানা ও জাকির হোসেনের প্যানেল জয়লাভ করে।

নির্বাচনে উপজেলার ২০৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক হাজার ২২৫ জন ভোটারের মধ্যে এক হাজার ১৪০ জন ভোটার তাদের কাঙ্খিত প্রার্থীদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন। ভোট গননা শেষে রোববার ভোররাতে ফলাফল ঘোষনা করেন, উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: নাজমুল হুদা ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার কামরুল হাসান ভূঁইয়া।

সভাপতি পদে ১নং ব্যালটের আবু কাউছার ভূঁইয়াকে ২৩০ ভোটের ব্যাবধানে পরাজিত করে ৩নং ব্যালটের রেবেকা সুলতানা ৬৮৫ ভোট পেয়ে জয়লাভ করে। সাধারণ সম্পাদক পদে ১নং ব্যালটের বজলুল হককে ৬৫৮ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে ৩নং ব্যালটের জাকির হোসেন ৮৭৬ পেয়ে জয়লাভ করে। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১নং ব্যালটের মোহাম্মদ নাছির উদ্দিনকে ৬২৭ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে ৩নং ব্যালটের জাকির হোসেন মাঝি ৮৭০ ভোট পেয়ে জয়লাভ করে। পরাজিত সভাপতি প্রার্থী আবু কাউছার ভূঁইয়া পেয়েছেন ৪৫৫ ভোট এবং পরাজিত সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী বজলুল হক পেয়েছেন ২১৮ ভোট ও পরাজিত সাংগঠনিক সম্পাদক প্রার্থী মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন পেয়েছেন ২৪৩ ভোট।

১নং ব্যালটের আবু কাউছার ভূঁইয়া ও বজলুল হক পরিষদ ৩৯টি পদে মোট প্রাপ্ত ভোট ১০ হাজার ৩৯৫, ২নং ব্যালটের জাকির হোসেনের একটি পদে প্রাপ্ত ভোট ৩। অপর দিকে ৩নং ব্যালটের রেবেকা সুলতানা ও জাকির হোসেন পরিষদ ৩৯টি পদে মোট প্রাপ্ত ভোট ৩১ হাজার ৮৯১।

সভাপতি পদে বিজয়ী রেবেকা সুলতানা বলেন, জয়ের ব্যপারে বেশ আশাবাদী ছিলাম। আমাকে ভোট দিয়ে যারা শিক্ষকদের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ দিয়েছেন তাদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। নির্বাচনে দেওয়া আমার প্রতিশ্রুতিগুলো শিক্ষকদের নিয়ে আগামী দিনগুলোতে বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করব ইনশাল্লাহ।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!